• আজ ২৯শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

হাসপাতালে গিয়ে সেবা না পাওয়া খুব দুঃখজনক: প্রধানমন্ত্রী

১১:৪৭ পূর্বাহ্ন | মঙ্গলবার, এপ্রিল ৭, ২০২০ জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা- করোনা ভাইরাসের প্রদুর্ভাব রোধে সবাইকে একসঙ্গে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এছাড়া চিকিৎসা নিতে গিয়ে হাসপাতালে সেবা না পাওয়ার ঘটনাকে দুঃখজনক বলে মন্তব্য করেছেন তিনি।

আজ মঙ্গলবার সকাল ১০টায় গণভবনে চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের জেলাগুলোর সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে প্রধানমন্ত্রী এ মন্তব্য করেন।

শেখ হাসিনা বলেন, প্রথমে একজন যে কোনোভাবে আক্রান্ত হয়। সে যখন চিকিৎসা করতে একের পর এক হাসপাতাল ঘুরে বেড়ায়, কোনো ডাক্তার পায়নি চিকিৎসার জন্য। এটা সত্যি খুব কষ্টকর এবং দুঃখজনক। ডাক্তারেরা কেন চিকিৎসা করবে না? তারপরও আমি বলব আমাদের প্রতিটি সরকারি প্রতিষ্ঠান অত্যন্ত আন্তরিকতার সঙ্গে কাজ করেছেন।

তিনি বলেন, করোনাভাইরাসের কারণে একটা স্থবিরতা এসে গেছে অর্থনৈতিকভাবে, সামাজিকভাবে সব ক্ষেত্রেই। তার ফলে আমরা অর্থনৈতিক যে একটা গতিশীলতা সৃষ্টি করতে পেরেছিলাম তা থেমে গেছে। শুধু আমাদের দেশে না সারা বিশ্বব্যাপী।

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, ‘এখন বিশ্বব্যাপী এই ঘটনা ঘটেছে, উন্নত দেশও করোনাভাইরাস মোকাবিলায় হিমশিম খাচ্ছে। বাঙালিরাও অনেক জায়গায় মৃত্যুবরণ করছে। যারা মৃত্যুবরণ করেছেন, আমি তাদের সবার আত্মার মাগফিরাত কামনা করছি।’

এখন পর্যন্ত বাংলাদেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ১২৩ জন, মৃতের সংখ্যা ১২। তবে যারা মারা গেছেন তারা বেশিরভাগই বয়স্ক, শারীরিকভাবে দুর্বল ছিলেন। তাদের অন্যান্য জটিলতা ছিল বলেও জানান প্রধানমন্ত্রী।

করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের মধ্যে সুস্থ হয়ে ঘরে ফিরে যাওয়ার সংখ্যা বেশি উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘এটা একদিক থেকে ভালো খবর। তবে প্রাদুর্ভাব বৃদ্ধি পাক, এটা চাই না। আমরা চাই দ্রুত এটি নিয়ন্ত্রণ হোক। এর জন্য সবাইকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে।’

তবে আরেকটি বিষয় দুর্ভাগ্যজনক উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থী রোগাক্রান্ত, হাসপাতালে হাসপাতালে ঘুরে সে চিকিৎসা পায়নি। এটি খুবই কষ্টকর। দুঃখজনক।’