সংবাদ শিরোনাম
  • আজ মঙ্গলবার। গ্রীষ্মকাল, ৭ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ। ২০শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ। বিকাল ৪:০৭মিঃ

বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার নিয়ে কটুক্তিকারী ইবির সেই ছাত্রী বহিষ্কার

১০:২০ অপরাহ্ন | মঙ্গলবার, এপ্রিল ৭, ২০২০ শিক্ষাঙ্গন
iuu

ইবি প্রতিনিধি: জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হত্যার বিচারকে ‘কাসুন্দি ঘাটা’ বলা ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের সেই ছাত্রীকে সাময়িক বহিষ্কার করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। মঙ্গলবার (৭ এপ্রিল) রাত ৯টার দিকে উপাচার্যের বাসভবনে অনুষ্ঠিত এক জরুরি সভায় ওই ছাত্রীকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। একই সঙ্গে এ ঘটনা তদন্তের জন্য তিন সদস্যের একটি কমিটি করা হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) এস এম আব্দুল লতিফ স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তি সূত্রে এ তথ্য নিশ্চিত হয়েছে।

বহিষ্কৃত ঐ ছাত্রীর নাম তানজিদা সুলতানা ছন্দ। সে বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী। যার রোল নম্বর ১৮০৯০৭৩।

তদন্ত কমিটিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক পরেশ চন্দ্র বর্ম্মণকে আহ্বায়ক করা হয়েছে। কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন আইন বিভাগের অধ্যাপক ড. রেহেনা পারভীন এবং পরিসংখ্যান বিভাগের সভাপতি ড. সাজ্জাদ হোসেন। কমিটিকে আগামী সাত কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

ক্যাম্পাস সূত্রে জানা গেছে, বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক কর্মী সাজ্জাদ হোসেন তার ফেসবুকে বঙ্গবন্ধু হত্যার আত্মস্বীকৃত খুনি মাজেদ গ্রেফতারের পর একটি পোস্ট দেন। সেই পোস্টে (ওই ছাত্রী লিখেছেন ‘শেখ মুজিব যদি খুন না হত তাহলে কী সে এখনো পর্যন্ত বেঁচে থাকতো? মুজিবুর রহমান অনেক বয়স পরই মারা গেছেন। কিন্তু আমরা আদিখ্যেতা জাতি একজনের খুনের বিচার করতে করতে ভুলেই যাই প্রতিদিন কতশত মানুষ আমাদের আশপাশে খুন হচ্ছে, গুম হচ্ছে। আমরা পুরাতন কাসুন্দি নিয়ে খুব বেশি ঘাটাঘাটি করতে পছন্দ করি।’

এমন মন্তব্যের পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছাত্রলীগের সাবেক ও বর্তমান নেতাকর্মীরা ওই ছাত্রীকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কারের দাবি জানান ।

এদিকে বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার নিয়ে ঐ ছাত্রীর করা মন্তব্যের নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন ইবি বঙ্গবন্ধু পরিষদের নির্বাচিত কমিটি। এক বিবৃতিতে পরিষদের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মাহবুবুল আরফিন বলেন, “বর্তমানে এই বৈশ্বিক দুর্যোগের মধ্যেও জাতির পিতার আত্মস্বীকৃত ও মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত খুনি আবদুল মাজেদ আটকের সংবাদটি বাঙালি জাতির মাঝে একটি আনন্দের বার্তা নিয়ে আসে। কিন্তু ইবি বঙ্গবন্ধু পরিষদ গভীর উদ্বেগের সাথে লক্ষ্য করছে যে, বঙ্গবন্ধুর হত্যার বিচারকে ‘পুরোনো কাসুন্দি ঘাটা’ উল্লেখ করে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী তানজিদা সুলতানা ফেসবুকে অবমাননাকর মন্তব্য করেছেন। যা বাঙালির বহু বছরের আরাধ্য বঙ্গবন্ধুর খুনিদের বিচার প্রক্রিয়া অবমাননার শামিল। এমতাবস্থা ইবি বঙ্গবন্ধু পরিষদ এ ঘটনার তীব্র নিন্দা এবং প্রতিবাদ জানাচ্ছে। একইসাথে যথাযথ প্রক্রিয়ায় এই নেক্বারজনক ঘটনার সুষ্ঠু বিচার ও ছাত্রীর স্থায়ী বহিষ্কার দাবি করছে।

ঐ ছাত্রীর বহিষ্কারের বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন প্রশাসক অধ্যাপক ড. জহুরুল ইসলাম বলেন, ওই ছাত্রী যা বলেছেন, সেটা অবশ্যই ঠিক হয়নি। এটা আপত্তিকর মন্তব্য। তবে যদি সে ক্ষমা চেয়ে থাকে, তবে ভবিষ্যতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন সেটি বিবেচনা করবে।