• আজ ২৫শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

‘সবাই খালি হাত ধুবের কয়, কেউ খাবার দেয় না’

❏ বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ৯, ২০২০ দেশের খবর, রংপুর

ফরহাদ আকন্দ, স্টাফ রিপোর্টার- ‘আজ কয়দিন হলো কত মানুষের দ্বারে দ্বারে ঘুরলাম কেউ এনা খাদ্য সহায়তা দিলো না। সবাই খালি হাতে ধুবের কয়, কেউ এনা খাবার দেয় না। পেটত ভাত না থাকলে হামরা হাত ধুয়ে কি করমো।’

এভাবেই প্রতিবেদকের কাছে তার অসহায়ত্বের কথাগুলো বলছিলেন সাদুল্যাপুরের রিকশাচালক আনারুল ইসলাম।

গাইবান্ধার সাদুল্যাপুর উপজেলার ইদুলপুর ইউনিয়নের গোবিন্দরায় চেড়েঙ্গা গ্রামের মৃত আবু তালেব এর ছেলে আনারুল ইসলাম দীর্ঘদিন হলো এলাকায় ও পলাশবাড়ী সদরে একটি পায়ে চালিত রিকশা চালায়। এই রিকশা চালিয়ে তার পরিবার চলে।

রিকশা চালক আনারুলের পরিবার মা, স্ত্রী, ২ সন্তান সহ ৫ সদস্যের পরিবার। বর্তমান সময়ে মানুষ বাহিরে না বাহির হওয়ায় রিকশা নিয়ে সারাদিন ঘুরলে এক কেজি চাউলের টাকায় আয় হয় না। করোনা ভাইরাসের কারণে দেশে এই অচলতম সময়ে অনাহারে দিন কাটছে এ পরিবারটির।

রিকশা চালক আনারুল সময়ের কণ্ঠস্বরকে বলেন, আমার ইউনিয়নের চেয়ারম্যান, মেম্বার, দলীয় নেতাকর্মীদের দ্বারে দ্বারে ঘুরে কেউ এক কেজি চাল দিয়েও সহযোগিতা করে নাই। পরিবার নিয়ে মহা বিপাকে পড়ছি। সারাদিনে ৬০ টাকা আয় করেছি চাল কিনি না ডাল কিনে তৌরি তরকারি কিনবো কি দিয়ে আয় করে কিনতে পারলে পরিবার নিয়ে খেতে পারবো। আমার তো মোবাইল নাই হটলাইনেও কল দিতে পারিনা। মানুষ কয় হটলাইনে কল দিলে নাকি বাড়িতে এসে খাদ্য সহায়তা দেয়।