‘করোনার চিকিৎসায় দেশে আইসিইউ আছে ১১২টি’

❏ বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ৯, ২০২০ আলোচিত বাংলাদেশ

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা- প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত সংকটাপন্ন রোগীকে ভেন্টিলেটরের মাধ্যমে কৃত্রিম শ্বাসপ্রশ্বাস দেওয়ার জন্য দেশের হাসপাতালগুলোতে ১১২টি আইসিইউ বেড আছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. সানিয়া তাহমিনা।

আজ বুধবার স্বাস্থ্য অধিদফতরের নিয়মিত অনলাইন ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানানো হয় তিনি। এই সংখ্যা প্রতিনিয়ত বাড়ানো হচ্ছে বলে আশাবাদ প্রকাশ করেন তিনি

তিনি বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় ১৬ জনকে আমাদের আইসোলেশনে নিতে হয়েছে। এ পর্যন্ত ১১১ জনকে আইশোলেশনে নেয়া হয়েছে। আইসোলেশনের শয্যা সংখ্যা ঢাকা মহানগরীতে ১৫৫০টি এবং ঢাকা শহরের বাইরে বিভিন্ন হাসপাতালে ৬ হাজার ১৪৩টি। এই সংখ্যাও প্রতিনিয়ত বাড়ানো হচ্ছে।

একইসাথে দেশে করোনার জন্য ডেডিকেটেড ৪০টি ডায়ালাইসিস সেন্টার আছে বলেও জানানো হয়।

গত ৮ এপ্রিল বাংলাদেশে প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। ওইদিন নমুনা পরীক্ষায় একজন রোগী শনাক্ত হওয়ার কথা জানায় সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর)।

গত ২৪ ঘণ্টায় ১০৯৭ টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। গতকালের তুলনায় নমুনা সংগ্রহ সংখ্যা ১১ শতাংশ বেড়েছে।

ব্রিফিংয়ে জানানো হয়, ২৪ ঘণ্টায় ১ হাজার ৩৩৭ জন হোম কোয়ারেনটাইনে রয়েছেন। প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেনটাইনে আছেন ১৪৯ জন। দেশে মোট কোয়ারেনটাইনে আছেন ১০ হাজারের বেশি মানুষ।

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনাভাইরাসের কারণে সৃষ্ট কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত ১১২ জন নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে। এ ছাড়া এ ভাইরাসে আক্রান্ত একজন মারা গেছেন।

নতুন শনাক্ত হওয়া ১১২ জনসহ গত এক মাসে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়ালো ৩৩০ জন। এ ছাড়া গত এক মাসে করোনায় মারা গেছেন ২১ জন।