• আজ ১৪ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

মাগুরায় হত দরিদ্রদের মাঝে বিতরণ করা ত্রাণ কেড়ে নেওয়ার অভিযোগ

৬:৫৭ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ৯, ২০২০ খুলনা, দেশের খবর

মতিন রহমান, মাগুরা প্রতিনিধি- মাগুরা সদর উপজেলার গোপালগ্রাম ইউনিয়নের বাহারবাগ গ্রামে (৮ এপ্রিল) বুধবার বিকালে অসহায় ও গরীব পরিবারের মাঝে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করা হয়। এলাকার কিছু বিত্তবান লোক এবং গোপালগ্রাম ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নাজমুল হাসান রাজিবের সহযোগিতায় এবং তারা উপস্থিত থেকে এই ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেন।

অভিযোগ ওঠে, এই ত্রাণসামগ্রী বিতরণ শেষে সবাই চলে যাওয়ার পর সন্ধ্যার পরে গ্রামের ওই সব বাড়ি থেকে ত্রাণ ছিনিয়ে আনে এলাকার কিছু দুষ্কৃতিকারীরা। আর ওই সব ছিনতাই করার পরে উক্ত ত্রাণসামগ্রী এলাকার এক মাতব্বরের বাড়িতে পাঠায় তারা।

ত্রাণ বিতরণের ব্যাপারে গোপালগ্রাম ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নাজমুল হাসান রাজিব জানান, সারাদেশে করোনা পরিস্থিতির নাজেহাল পরিস্থিতিতে দলমত নির্বিশেষে বিভিন্ন শ্রেণীপেশার লোকের মাঝে এই ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। কিন্তু অত্যন্ত দুঃখজনক ব্যাপার হচ্ছে আমরা গ্রাম থেকে চলে আসার পর কিছু দুষ্কৃতিকারীরা ওই সব ত্রাণ সামগ্রী গরীব লোকদের বাড়ি থেকে ছিনতাই করে। এই ঘটনার জন্য তিনি দুঃখ প্রকাশ করেন এবং এই ন্যাক্কারজনক ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত করে তাদের বিরুদ্ধে আইনগতভাবে কঠিন শাস্তির দাবি জানান তিনি।

এই ঘটনায় শত্রুজিৎপুর পুলিশ ক্যাম্পের এসআই বিশ্বজিৎ রায় জানান, এরকম একটি ঘটনার খবর পেয়ে আমরা বাহারবাগ গ্রামে গতকাল রাতেই ছুটে যাই। সেখানে গিয়ে ঘটনার সত্যতা মেলে এবং জানতে পারি ওই ত্রাণগুলো চেয়ারম্যানের বিরোধী দলের মধ্যে বিতরণ করতে দুষ্কৃতিকারীরা ওইসমস্ত ত্রাণ সামগ্রী কেড়ে নিয়ে তাদের পক্ষের মাতব্বরের বাড়িতে রেখে আসে।

বিশ্বজিৎ রায় আরো বলেন, এখন দেশের যে করোনা পরিস্থিতি তাতে মানুষ দলাদলি না করে সবার মাঝে খাবার বিতরণ করছে। অথচ বাহারবাগ গ্রামে এই সব দুষ্কৃতকারীরা অসহায় ও গরীবের মাঝে বিতরণ করা ত্রাণ কেড়ে নিচ্ছে।

তিনি আরো জানান, এ ঘটনার পর পুলিশ অভিযান চালিয়ে ত্রাণ সামগ্রীগুলো উদ্ধার করে। সেইসঙ্গে ঘটনার সঙ্গে জড়িত কয়েকজনকে ধরে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মাগুরা সদর থানায় পাঠানো হয়েছে।

এদিকে এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে জেলাজুড়ে বিভিন্ন মহলের পক্ষ থেকে তীব্র নিন্দার ঝড় উঠেছে।