🕓 সংবাদ শিরোনাম

কারাগারে বাড়তি নিরাপত্তায় বাবুল আক্তারসাংবাদিক রোজিনাকে হয়রানি ও হেনস্থার প্রতিবাদে রাঙামাটি প্রেসক্লাবের মানববন্ধনসাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে নির্যাতনের প্রতিবাদে টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবের মানববন্ধনঝালকাঠিতে জমি নিয়ে বিরোধে কৃষককে কুপিয়ে হত্যা,আটক-২মাত্র ২০ ঘন্টায় ১০ লক্ষ দর্শক পেল“ তাকে ভালোবাসা বলে” নাটকটিবিয়ের কথা বলে প্রেমিকাকে তুলে নিয়ে রাতভর ধর্ষণভারতে করোনায় একদিনে মারা গেলেন ৫০ চিকিৎসকদেশে বিশেষ অভিযান চালাবে ইন্টারপোলসাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে নেওয়া হলো আদালতেতুমুল সমালোচনার মুখে ‘জেরুজালেম প্রেয়ার টিম’পেজ সরিয়ে নিল ফেসবুক কর্তৃপক্ষ

  • আজ মঙ্গলবার, ৪ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ ৷ ১৮ মে, ২০২১ ৷

যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় মৃত্যুর হার ৩.৬ শতাংশ, বাংলাদেশে ৬.৩ শতাংশ


❏ শুক্রবার, এপ্রিল ১০, ২০২০ আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ করোনাভাইরাসে বিশ্বজুড়ে মৃত্যুর সংখ্যা বেড়েই চলছে। পাল্লা দিয়ে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যাও। বিশ্বের মধ্যে এখন পর্যন্ত সবেচেয়ে বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে। সেখানে বাড়ছে মৃত্যুর সংখ্যাও।

তবে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা বাড়লেও যুক্তরাষ্ট্রে মৃত্যুর হার কিন্তু ৩.৬ শতাংশ। আর এই হারেই যুক্তরাষ্ট্রে এখন পর্যন্ত ১৬ হাজার ৪৭৮ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে জন্স হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়। আর আক্রান্তের সংখ্যা চার লাখ ৬১ হাজারের বেশি।

যদিও মৃত্যুর হারের দিক দিয়ে সবার ওপরে রয়েছে ইতালি। সেখানে মৃত্যুর হার ১২.৭ শতাংশ। দেশটিতে এখন পর্যন্ত ১৮ হাজার ২৭৯ জন করোনায় মারা গেছে। জন্স হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয় বলছে, দেশটিতে আক্রান্ত হয়েছে এক লাখ সাড়ে ৪৩ হাজারের বেশি মানুষ।

জন্স হপকিন্সের ওই তালিকায় ইতালির পরই রয়েছে যুক্তরাজ্যের নাম। দেশটিতে করোনায় মৃত্যুর হার ১২.১ শতাংশ। এ যাবত দেশটিতে সাত হাজার ৯৯৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। আর আক্রান্ত হয়েছে সাড়ে ৬৫ হাজারের বেশি মানুষ।

স্পেন বা ফ্রান্সের তুলনায় মৃত্যু কম হলেও মৃত্যুর হারের দিক দিয়ে তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে নেদারল্যান্ডস। দেশটিতে করোনায় মৃত্যুর হার ১১ শতাংশ। নেদারল্যান্ডসে এখনও পর্যন্ত দুই হাজার ৪০৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। আর আক্রান্ত হয়েছে ২১ হাজার ৯০৩ জন।

ফ্রান্সের মত্যুর হার ১০.৩ শতাংশ। দেশটিতে এখন পর্যন্ত এক লাখ ১৮ হাজার ৭৮১ জন আক্রান্ত হয়েছে। আর মৃত্যু হয়েছে ১২ হাজার ২২৮ জনের।

ইতালি ও যুক্তরাষ্ট্রের পর সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হওয়া দেশগুলোর তালিকায় রয়েছে স্পেন। সেই স্পেনে মৃত্যুর হার ১০.১ শতাংশ। দেশটিতে এখন পর্যন্ত এক লাখ ৫৩ হাজার ২২২ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। আর মৃত্যু হয়েছে ১৫ হাজার ৪৪৭ জনের।

ইউরোপের আরেক দেশ বেলজিয়ামেও মৃত্যুর হার ১০.১ শতাংশ। সেখানে মৃত্যু হয়েছে দুই হাজার ৫২৩ জন। আর আক্রান্ত হয়েছে ২৪ হাজার ৯৮৩ জন।

এশীয় অঞ্চলের মধ্যে চীনের বাইরে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে ইরানে। সেখানে করোনায় মৃত্যুর হার ৬.২ শতাংশ। এখন পর্যন্ত দেশটিতে ৬৬ হাজার ২২০ জন আক্রান্তের বিপরীতে ৪ হাজার ১১০ জনের মৃত্যু হয়েছে।

এদিকে করোনাভাইরাসে উৎপত্তি হওয়া চীনে মৃত্যুর হার ছিল ৪ শতাংশ। সেখানে এখন করোনার তাণ্ডব প্রায় থেমে গেছে। দেশটিতে ৮২ হাজার ৮৮৩ জন করোনায় আক্রান্ত রোগীর বিপরীতে ৩ হাজার ৩৩৯ জনের মৃত্যু হয়েছে।

অন্যদিকে বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত ৪২৪ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া গেছে। তাদের মধ্যে ২৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর হার ৬.৩ শতাংশ।