• আজ বৃহস্পতিবার, ৩০ বৈশাখ, ১৪২৮ ৷ ১৩ মে, ২০২১ ৷

নারায়ণগঞ্জ থেকে লালমনিরহাটে আসা একজনের দেহে করোনা শনাক্ত

corona-test
❏ শনিবার, এপ্রিল ১১, ২০২০ রংপুর

মোঃ ইউনুস আলী, লালমনিরহাট প্রতিনিধি: লালমনিরহাট সদর উপজেলায় নারায়নগঞ্জ থেকে ফিরে আসা এক জনকে প্রথম করোনা ভাইরাস রোগী হিসাবে শনাক্ত করা হয়েছে। ফলে এলাকাটি লাল পতাকা দিয়ে সম্পুর্ণরুপে লক ডাউনের ঘোষণা করা হয়েছে।

শনিবার (১১ এপ্রিল) বিকালে ওই রোগীর নমুনা রিপোর্ট-এর রেজাল্ট রংপুর থেকে পজেটিভ আসে।
করোনায় আক্রান্ত রোগী সদর উপজেলার গোকুন্ডা ইউনিয়নে গুড়িয়াদহ গ্রামের বুদারবাশের তল এলাকার বাসিন্দা। পেশায় তিনি কাঠ মিস্ত্রী।

জানা গেছে, তিনি গত ৮ এপ্রিল নারায়ণগঞ্জ থেকে লালমনিরহাটে আসে। বাসায় আসার পরে থেকে তিনি শরীরে সর্দি-জ্বর, কাশি ও শ্বাস কষ্ট অনুভব করে। পরের দিন ৯ এপ্রিল লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে যোগাযোগ করলে হাসপাতল কর্তৃপক্ষ তার নমুনা সংগ্রহ করে রংপুরে প্রেরন করে। আজ ১১ এপ্রিল বিকালে রংপুর থেকে নমুনা রিপোর্ট-এর রেজাল্ট পজেটিভ আসে।

করোনা আক্রান্ত রোগীর সাথে মুঠো ফোনে কথা হলে তিনি জানান, সে ঢাকায় নারায়ণগঞ্জে রাজ মিস্ত্রির কাজ করতেন। গত ৮ এপ্রিল তারা এক সাথে ১৪ জন মাইক্রো যোগে রংপুর শঠিবাড়ি এলাকায় নামে। সেখান থেকে তারা একই এলাকার ৫ জনসহ নিজের বাড়িতে আসেন।

লালমনিরহাট সিভিল সার্জন ডাঃ নির্মলেন্দু জানান, গতকাল ১০ জনের নমুনা সংগ্রহ করে রংপুরে পাঠানো হয়। তার মধ্যে এক জনের রেজাল্ট পজেটিভ হয়েছে। তাকে অতিদ্রুত তার বাড়ি থেকে প্রথমে লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে এনে চিকিৎসা দেওয়া হবে। পরে যদি তার অবস্থার অবনতি ঘটে তাহলে রংপুরে পাঠানো হবে।

এবিষয়ে কথা হলে লালমনিরহাট জেলা প্রশাসক আবু জাফর ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, তারা যে কয়েকজন এক সাথে এসেছে তাদেরকে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। এছাড়াও ভাইরাস সংক্রমন রোধে ঐ এলাকাটিতে লাল পতাকা দিয়ে সম্পন্ন ভাবে লক ডাউনের কার্যক্রম চলছে।