🕓 সংবাদ শিরোনাম

হঠাৎ বেনজেমার জাতীয় দলে ফেরার সম্ভাবনা দেখা দিয়েছেকর্ণফুলী থানার পাশেই ছুরিকাঘাতে যুবক খুন সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে হেনস্তা করায়  ‘মিডিয়া এডুকেটরস নেটওয়ার্ক’ এর প্রতিবাদসাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে হেনস্তা ও গ্রেফতারের প্রতিবাদে আমিরাতে সাংবাদিকদের প্রতিবাদ সভাকক্সবাজারে বিপুল সিগারেটসহ ৩ যুবক আটকরোজিনার সঙ্গে যারা অন্যায় করেছে, তাঁদের জেলে পাঠান: ডা. জাফরুল্লাহকেরানীগঞ্জে ফ্ল্যাট থেকে যুবতীর অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধারপাটগ্রাম সীমান্তে অবৈধভাবে অনুপ্রবেশের দায়ে নারী ও শিশুসহ ২৪জন আটকসাংবাদিকদের ভয় দেখিয়ে সরকার গণমাধ্যমের কণ্ঠরোধ করতে চায়: ভিপি নুরসাংবাদিকদের বিরুদ্ধে মামলা নয়, দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিন: হানিফ

  • আজ বুধবার, ৫ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ ৷ ১৯ মে, ২০২১ ৷

ওয়াশিংটনে করোনা কেড়ে নিল ২ বাংলাদেশির প্রাণ


❏ সোমবার, এপ্রিল ১৩, ২০২০ আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃকরোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আমেরিকার ওয়াশিংটনে দুই বাংলাদেশির মৃত্যু হয়েছে।

তারা হলেন-মেরিল্যান্ড প্রবাসী চিকিৎসক আবদুল মান্নান (৮০) ও ভার্জিনিয়ার মুজাহিদুর রহমান (৭০)।

গত ১১ এপ্রিল তাদের মৃত্যু হয় বলে জানা গেছে।

মেরিল্যান্ড প্রবাসী চিকিৎসক আবদুল মান্নানের বাড়ি বগুড়ায়। তিনি রাজশাহী মেডিকেল কলেজ থেকে এমবিবিএস করে পরে ইংল্যান্ডে ডিগ্রি নেন।

এরপর ১৯৭৭ সালে তিনি আমেরিকা চলে আসেন। তিনি এক ছেলে, এক মেয়ে ও চারজন নাতি-নাতনি রেখে গেছেন।

একই দিনে করোনায় আক্রান্ত হয়ে ভার্জিনিয়ার মুজাহিদুর রহমানের মৃত্যু হয়েছে।

মুজাহিদুর রহমানের স্ত্রী প্রথমে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হলে তিনি স্থানীয় হাসপাতালে যোগাযোগ করেন। প্রয়োজনীয় ব্যবস্থাপত্র দিয়ে বাসায় হোম কোয়ারিন্টিনে পাঠিয়ে দেয় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

বাসায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি সুস্থ্য হয়ে উঠলেও আক্রান্ত হয় তার স্বামী মুজাহিদুর রহমানসহ পরিবারের আরও পাঁচ সদস্য।

১১ এপ্রিল মুজাহিদুরের অবস্থার অবনতি হলে দ্রুত তাকে স্থানীয় একটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানেই তার মৃত্যু হয়।

ভার্জিনিয়ার উডব্রিজে বসবাসকারী মুজাহিদুরের মৃত্যু বৃহত্তর ওয়াশিংটনে প্রথম বাংলাদেশির মৃত্যু। এই মৃত্যুর সংবাদে ইতিমধ্যেই বাংলাদেশি কমিউনিটিতে আতঙ্ক শুরু হয়েছে।

প্রসঙ্গত করোনায় সংক্রমণ ও মৃত্যুর সংখ্যায় ইতালিকেও হার মানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে সর্বশেষ খবর অনুযায়ী মৃতের সংখ্যা ২২ হাজার। সংক্রমণের শিকার ৫ লাখ ৫৫ হাজার।