আত্মীয়ের বাড়িতে পালিয়ে এসে স্বামী-স্ত্রীসহ ৩ জন করোনায় আক্রান্ত

❏ সোমবার, এপ্রিল ১৩, ২০২০ ঢাকা
biur

শরীয়তপুর প্রতিনিধি: শরীয়তপুর সদর উপ‌জেলার চিত‌লিয়া ইউ‌নিয়‌নে একই প‌রিবা‌রের ৩ জন ও জাজিরা উপ‌জেলার মূলনা ইউ‌নিয়‌নের ১ জন সহ মোট ৪ জন করোনা রোগী সনাক্ত হয়েছে।

সোমবার (১৩ এ‌প্রিল) বিকা‌লে আইইডিসিআর রিপোর্টে দুই নারীসহ ৪জনের করোনা (পজেটিভ) বিষয়টি নিশ্চিত করে প্রশাসন ও স্বাস্থ্য বিভাগ।

এর আগে করোনা শনাক্ত হওয়া ব্যাক্তিরা নারায়ণগঞ্জ জেলা লকডাউন ঘোষনা পর পালিয়ে গ্রামের বাড়ি মাদারীপুরের যায়। কিন্ত ওই এলাকাবাসী তাদের বাড়িতে প্রবেশ করতে নিষেধ করে পাঠিয়ে দেয়। পরে শ্বুশুর বাড়ি শরীয়তপুর সদর উপজেলায় কাশিপুরে চলে আসে। এর ১দিন পর বিষয়টি জানাজানি হলে নমুনা পরীক্ষা করে স্বাস্থ্য বিভাগ। আজ রিপোর্টে করোনা শনাক্ত হওয়ায় রাত ৭টার দিকে প্রশাসনের পক্ষ থেকে ওই এলাকা লকডাউন ঘোষনা করা হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে একটি প্রেস বিজ্ঞ‌প্তি প্রকাশ ক‌রে‌ছে শরীয়তপুর জেলা প্রশাসক কাজী আবু তা‌হের।

শরীয়তপুরের সি‌ভিল সার্জন ডা. এস.এম আব্দুল্লাহ আল মুরাদ জানান, এই প্রথম জেলায় নমুনা সং‌গ্র‌হের পর ৪জ‌নের ক‌রোনা প‌জে‌টিভ পাওয়া গে‌ছে। এরা একজন জা‌জিরা উপ‌জেলার ও অন্য ৩জন সদর উপ‌জেলার। এই ৪জন রোগী ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জ থেকে পালিয়ে এ‌সে‌ছে। এরপর নমুনা সংগ্রহ ক‌রে পাঠা‌নো হয় আইইডিসিআরে। আজ ১৪ জ‌নের ফলাফ‌লে একই প‌রিবা‌রের তিনজন’সহ মোট ৪জ‌নের করোনার সংক্রমন মিল‌লো। তা‌দেরকে বাড়ি আইসোলেশনে রে‌খে চি‌কিৎসা দেওয়া হ‌চ্ছে।

ঘটনার বিবরণে প্রকাশ, কয়েকদিন আগে ন‌ড়িয়া উপ‌জেলার এক বৃদ্ধ ক‌রোনা আক্রান্ত হ‌য়ে ঢাকায় চি‌কিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়। এছাড়া করোনা উপসর্গ নিয়ে এখন পর্যন্ত ৪জন মারা যাওয়ার তথ্য পাওয়া গেছে। জেলার সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী ২১৪জন অাগত এখ‌নো হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছে।