🕓 সংবাদ শিরোনাম

হঠাৎ বেনজেমার জাতীয় দলে ফেরার সম্ভাবনা দেখা দিয়েছেকর্ণফুলী থানার পাশেই ছুরিকাঘাতে যুবক খুন সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে হেনস্তা করায়  ‘মিডিয়া এডুকেটরস নেটওয়ার্ক’ এর প্রতিবাদসাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে হেনস্তা ও গ্রেফতারের প্রতিবাদে আমিরাতে সাংবাদিকদের প্রতিবাদ সভাকক্সবাজারে বিপুল সিগারেটসহ ৩ যুবক আটকরোজিনার সঙ্গে যারা অন্যায় করেছে, তাঁদের জেলে পাঠান: ডা. জাফরুল্লাহকেরানীগঞ্জে ফ্ল্যাট থেকে যুবতীর অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধারপাটগ্রাম সীমান্তে অবৈধভাবে অনুপ্রবেশের দায়ে নারী ও শিশুসহ ২৪জন আটকসাংবাদিকদের ভয় দেখিয়ে সরকার গণমাধ্যমের কণ্ঠরোধ করতে চায়: ভিপি নুরসাংবাদিকদের বিরুদ্ধে মামলা নয়, দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিন: হানিফ

  • আজ বুধবার, ৫ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ ৷ ১৯ মে, ২০২১ ৷

ইতালি-অস্ট্রিয়া-স্পেন-ডেনমার্কে লকডাউন শিথিল


❏ মঙ্গলবার, এপ্রিল ১৪, ২০২০ আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে বলবৎ থাকা লকডাউন কিছু শিথিল করেছে অস্ট্রিয়া। এর ফলে সেখানকার শত শত দোকানপাট পুনরায় খুলেছে। দেশটির কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, গার্ডেন সেন্টার, ডিআইইউ স্টোর এবং ছোট ছোট দোকান খোলা যাবে কিন্তু সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে। খবর বিবিসির।

ইতালিতেও অল্প পরিসরে দোকানপাট খোলা এবং ব্যবসা চালু করার অনুমতি দেয়া হয়েছে। করোনাভাইরাস মহামারিতে ইতালিতে এখন পর্যন্ত ২০ হাজারের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে।

তবে যেসব এলাকায় করোনা তাণ্ডব চালিয়েছে সেখানে এখনও লকডাউন পুরোমাত্রায় বলবৎ রয়েছে। লোম্বার্দি ও উত্তরাঞ্চলীয় এলাকায় আরও সময়ের জন্য লকডাউন থাকবে।

পাঁচ সপ্তাহ লকডাউন থাকার পর বইয়ের দোকান, স্টেশনারি এবং বাচ্চা ও শিশুদের কাপড়ের দোকান খুলেছে ইতালিতে। তবে ক্রেতার সংখ্যা ও হাইজিনের ব্যাপারে কঠোর নিয়ম মেনে চলতে বলা হয়েছে।

অস্ট্রিয়া ও ইতালি ছাড়াও ইউরোপের আরও কয়েকটি দেশ লকডাউন শিথিল করেছে। সেগুলোর মধ্যে অন্যতম হচ্ছে স্পেন। করোনায় বিশ্বের মধ্যে যে তিনটি দেশে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে স্পেন সেগুলোর একটি।

তবে দেশটি কিছু কিছু ব্যবসা চালু করার অনুমতি দিয়েছে। গত ২০ মার্চের পর দেশটিতে মঙ্গলবার সবচেয়ে কম সংক্রমণ হয়েছে। মৃত্যুর হারও অনেকটা কমে এসেছে।

ইউরোপের আরেক দেশ ডেনমার্ক ছোট বাচ্চাদের স্কুল খোলার অনুমতি দিয়েছে। এছাড়া পোল্যান্ড জানিয়েছে, তারা রোববার থেকে ধীরে ধীরে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খোলার অনুমতি দেবে। সেক্ষেত্রে আগে দোকানপাট খোলার অনুমতি দিতে পারে দেশটি।

যদিও ফ্রান্সে লকডাউন আরও চার সপ্তাহ বৃদ্ধি করা হয়েছে। দেশটির প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ আগামী ১১ মে পর্যন্ত ফ্রান্সে লকডাউন বৃদ্ধি করেছেন। টেলিভিশনে দেয়া এক ভাষণে তিনি বলেন, বর্তমান বিধিনিষেধের কারণে এই ভাইরাসের সংক্রমণ কমেছে, তবে এটি পরাজিত হয়নি।

এদিকে জার্মানির রবার্ট কোচ পাবলিক হেলথ ইন্সটিটিউটের প্রধান বলেছেন, সংক্রমণ কিছু ধীরগতির হয়ে আসছে কিন্তু এখনও সবকিছু খুলে দেয়া ঠিক হবে না।