কোটালীপাড়ায় ত্রাণ নিয়ে সংঘর্ষে আহত ২১

❏ বুধবার, এপ্রিল ১৫, ২০২০ ঢাকা
tran

এইচ এম মেহেদী হাসানাত, স্টাফ রিপোর্টার গোপালগঞ্জ: গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া পৌরসভায় ত্রান বিতরণ নিয়ে সংঘর্ষে মহিলাসহ কমপক্ষে ২১ জন আহত হয়েছে। আজ বুধবার সকালে কোটালীপাড়া পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ডের শিমুলবাড়িতে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

এ সময় আলেয়া বেগম (৫০), আমজেদ খলিফা (৪০), লালন খলিফা (৩৫), রাজিব (২৫), চাঁনমিয়া খলিফা (৪২), এনামুল খলিফা (২২), বাচ্চু খলিফা (৩৮), ফিরোজ খলিফা (৩৮), ছমিরউদ্দিন খলিফা (৫৫), টুটুল খলিফা (২৬), সরো খলিফা (৩০), সোহান খলিফা (২৬), আজিজুল খলিফা (৪০), সামচুল হক খলিফা (৪৬) , নজরুল ইসলাম খলিফা (৩৫), কবির খলিফা (৪০), সরোয়ার খলিফা (৪০), রনী খলিফা (১৮), আশিক খলিফা (২১), আনোয়ার খলিফা (৪৮), ও আরিফ খলিফা (৪৫) আহত হন। আহত ১৯ জনকে কোটালীপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্রেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

হাসপাতালে ভর্তি আহত চাঁনমিয়া খলিফা ও ফিরোজ খলিফা অভিযোগ করে বলেন, আমরা পৌর সভার ৩ নং ওয়ার্ডে কর্মহীন দিন মজুর। করেনায় কাজ হারিয়ে অনাহারে অর্ধাহারে দিন কাটাচ্ছি। ৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর কামাল সরদার তার সমর্থক ও স্বচ্ছল পরিবারের মধ্যে ত্রান বিতরণ করছেন। এ বিষয় আমরা প্রতিবাদ করলে কমিশনারের সমর্থক আইয়ূব আলী আমাদের ওপর হামলা করে। পরে দু’ পক্ষের লোকজন সংষর্ষে লিপ্ত হলে খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এতে অন্তত ২১ জন আহত হয়।

আহতদের অভিযোগ অস্বীকার করে ৩ নং ওয়ার্ডে কউন্সিলন কামাল হোসেন সরদার বলেন, ত্রান বিতরণে আমি কোন প্রকার স্বজনপ্রীতি করিনি। যারা ত্রান পাওয়ার উপযুক্ত তাদেরকেই দেয়া হয়েছে। আহতরা মিথ্যে অভিযোগ করেছে। আইয়ুব আলীর সাথে খলিফাদের আগে থেকেই বিরোধ ছিলো। এ নিয়ে এ ঘটনা ঘটতে পারে ।

পৌর মেয়র হাজী মোঃ কামাল হোসেন শেখ বলেন, যারা ত্রাণ পাওয়ার উপযুক্ত তাদেরকে দেওয়ার জন্য প্রত্যেক কাউন্সিলরকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সে ভাবেই ত্রাণ বিতরণ করা হচ্ছে।

কোটালীপাড়া থানার ওসি তদন্ত মোঃ জাকারিয়া বলেন ত্রাণ বিতরণ নিয়ে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে বলে শুনেছি। এ ব্যাপারে কেউ এখনো কোন অভিযোগ করেনি।অভিযোগ পেলেই আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে পরিস্হিতি নিয়ন্ত্রণে আনে