• আজ মঙ্গলবার, ১২ শ্রাবণ, ১৪২৮ ৷ ২৭ জুলাই, ২০২১ ৷

ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল টিম ঘুরছে গ্রামে গ্রামে: প্রশংসায় ভাসছেন এমপি জিল্লুল


❏ বুধবার, এপ্রিল ১৫, ২০২০ চট্টগ্রাম, দেশের খবর

খন্দকার রবিউল ইসলাম, রাজবাড়ী প্রতিনিধি: করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ আতস্কিত নয় সচেতন থাকুন “ডাক্তারের কাছে রোগী নয় রোগীর কাছে ডাক্তার” এ প্রতিপাদ্যকে ধারণ করে রাজবাড়ীতে ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল টিম সার্ভিস চালু হয়েছে।

করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় সকল প্রকার চেষ্টা করছেন রাজবাড়ী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও রাজবাড়ী ২ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ জিল্লুল হাকিম ও তার পুত্র জেলা আওয়ামী লীগের অন্যতম সদস্য বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আশিক মাহমুদ মিতুল।

সর্বাক্ত প্রচেষ্টা চালিয়ে যাওয়ার মধ্যে আর্তমানবতার সেবায় অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করছেন ব্যাতিক্রমি উদ্দ্যোগ গ্রহণ করে। ডাক্তারা যখন রোগীর সেবা দিতে অনীহা প্রকাশ করছেন তখনই রোগীর বাড়ি ডাক্তার পাঠানোর যুগান্তকারী পদক্ষেপ নিয়েছেন তিনি। গত ৫ এপ্রিল শনিবার থেকে শুরু হয়েছে এ সেবা।

হটলাইনে ফোন করলেই করলেই ডাক্তার ও নাসরা আম্বুলেন্স নিয়ে বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে সেবা ও ওষুধ দিচ্ছেন রোগীদের। সম্প্রতি চিকিৎসা সেবার কিছু ছবি ইতিমধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রকাশ পেলে সেটা ভাইরালও হয়েছে। সাধারণ মানুষ এ জন্য স্থানীয় সংসদের প্রশংসা করেছে। হট লাইন নাম্বার গুলো হলো, ০১৭৯৮-৬২৭৩৩৬, ০১৮১৬-৮৭১৬২০।

প্রতিদিন সকাল থেকে মধ্য রাত পর্যন্ত ৩টি উপজেলার ২৪টি ইউনিয়ন, একটি পৌরসভার বিভিন্ন গ্রামে মানুষের বাড়িতে গিয়ে শত শত রোগীকে সেবা দিচ্ছেন ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল টিমের চিকিৎসকরা।

পাংশার স্থানীয় এক সংবাদ কর্মী বলেন, করোনাভাইরাস প্রতিরোধে খাদ্যসহায়তা দেয়ার পাশাপাশি রাজবাড়ী-২ আসনের সংসদ সদস্য ও তার পুত্র নির্বাচনী এলাকায় মানুষের পাশে থেকে সেবা দিতে কাজ করছেন। এ জন্য এলাকার মানুষের কাছে তিনি স্মরণীয় হয়ে থাকবেন।

এ বিষয়ে ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল টিমের ডা. তিতুমী বিশ্বাসসহ কয়েকজন চিকিৎসক বলেন, করোনাভাইরাসের কারণে পাংশা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ইতিমধ্যে এমপি সাহেব ও তার পুত্র পিপিই, মাস্ক, হ্যান্ডওয়াশ, হ্যান্ড স্যানিটাইজারসহ ১০ লাখ টাকার চিকিৎসা সরঞ্জাম প্রদান করেছেন। এতে মানুষের সেবা দেয়ার আরও বড় একটা সুযোগ পাওয়া গেছে।

তিনি বলেন, স্বাস্থ্যসেবা পেতে কোনো জরুরি রোগী হাসপাতালে না আসতে পারে তাহলে ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল টিমের মোবাইল নম্বরের হটলাইনে ফোন করলেই বাড়িতে সে সেবাটা পাবে বলে জানান তিনি।

বালিয়াকান্দি উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা মোঃ শাফিন জব্বার, বলেন মাননীয় সংসদ সদস্য যে উদ্যোগ নিয়েছেন তা সত্যি প্রসংসনীয়। এই মুহুর্তে মানুষ হাসপাতালে আসতে পারে না। সে কারনেই এমপি জিল্লুল হাকিম ভ্রাম্যমান মেডিকেল টিমের ব্যবস্থা করেছেন। যার কারনেই মানুষ বাড়িতে বসেই সেবা পাচ্ছে।

বালিয়াকিন্দ উপজেলা নির্বাহী অফিসার একে এম হেদায়েতুল ইসলাম বলেন, রাজবাড়ী ২আসনের এমপি মোঃ জিল্লুল হাকিম মহোদয় যে ভ্রাম্যমান মেডিকেল টিম চালু করেছেন। যার ফলে বালিয়াকান্দি সহ ৩টি উপজেলাতেই এভাবে ভ্রাম্যমান মেডিকেল টিম দিয়েছেন। অবশ্যই এটি একটি যুগান্তকারী পদক্ষেপ নিছেন তিনি আমরা তার এই উদ্যোগকে স্বাগত জানাই।

রজাজবাড়ী-২ আসনের সংসদ সদস্য মো. জিল্লুল হাকিম দবলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা মিলে মাঠে কাজ করে যাচ্ছি। আমার নির্বাচনী এলাকার কোনো মানুষ যেন ক্ষুধা এবং চিকিৎসা সেবায় কষ্ট না পায় সেই জন্য সকলের সহযোগিতায় কাজ করে যাচ্ছি।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন