‘ট্রাম্পের ঘোষণা দুঃখজনক’- বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

◷ ১১:৩১ পূর্বাহ্ন ৷ বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ১৬, ২০২০ আন্তর্জাতিক
trump

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ করোনাভাইরাসে যখন মৃত্যু ও আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলছে, তখন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সহায়তা বন্ধের ঘোষণাকে দুঃখজনক বলে আখ্যায়িত করেছেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান ড. টেড্রস অ্যাডহানম গেব্রেইয়েসুস। বুধবার এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

ডব্লিউএইচওর মহাপরিচালক বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্র বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার দীর্ঘদিনের বন্ধু। আমরা আশা করি যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে এই সম্পর্ক চলমান থাকবে। কিন্তু এখন সময় বিশ্ববাসীকে এক হয়ে করোনা মহামারির বিরুদ্ধে সংগ্রাম করা। তিনি এ ভাইরাসকে ভয়ংকর শক্র বলে অভিহিত করেন।’

তিনি বলেন, মার্কিন তহবিল প্রত্যাহারে আমাদের কাজের ওপর প্রভাব পর্যালোচনা করে দেখা হবে। শূনতা পূরণে আমরা অংশীদারদের সঙ্গে কাজ করব। আমাদের কার্যক্রম যাতে নির্বিবাদে চালিয়ে যাওয়া সম্ভব হয়, তা নিশ্চিত করা হবে।

এর আগে হোয়াইট হাউসে এক সংবাদ সম্মেলনে ট্রাম্প বলেন, ‘আমি করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব মোকাবিলায় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ভূমিকা যাচাই করে দেখার নির্দেশ দিয়েছি। তার আগ পর্যন্ত সংস্থাটিতে তহবিল বন্ধ করার নির্দেশ প্রশাসনকে দিয়েছি।’ এর আগে গত সপ্তাহে ট্রাম্প অভিযোগ করেছিলেন, যুক্তরাষ্ট্র সবচেয়ে বেশি অর্থ দেয় ডব্লিউএইচওকে। কিন্তু কোনো কারণে ডব্লিউএইচও খুব চীনকেন্দ্রিক।

তবে ট্রাম্পের সমালোচকদের দাবি, করোনা মোকাবেলায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট নিজের ব্যর্থতা ঢাকতে ডব্লিউএইচওকে বলির পাঁঠা বানাচ্ছেন। এটি সত্য, ডব্লিউএইচওর সবচেয়ে বড় একক তহবিলদাতা যুক্তরাষ্ট্র। গত বছর ৪০ কোটি ডলার দিয়েছে দেশটি, যা সংস্থাটির মোট বাজেটের প্রায় ১৫ শতাংশ।

ডব্লিউএইচওর ওয়েবসাইটের তথ্য অনুযায়ী, ২০১৮-১৯ অর্থবছরে তহবিলে চীনের নির্ধারিত অবদান ৭ কোটি ৬০ লাখ ডলার। এ ছাড়া স্বেচ্ছাসেবী তহবিল ছিল ১ কোটি ডলার। গত মার্চে এই মহামারির বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য ৬৭ কোটি ৫০ লাখ ডলারের একটি তহবিল গঠনের কাজ শুরু করে ডব্লিউএইচও। এ ছাড়া ১ বিলিয়ন ডলারের একটি নতুন আবেদন করার পরিকল্পনা আছে সংস্থাটির।