সংবাদ শিরোনাম

হবিগঞ্জে বিদ্রোহীর আগুনে পুড়েছে তিন নৌকাকক্সবাজারে পিস্তল রামদাসহ ৫ রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী আটকবেরোবির অনুমোদিত নকশা পরিবর্তন মেনে নেয়া যায় না: তদন্ত কমিটিঅসময়ে ঢাকায় গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি, বাড়বে শীতবসুরহাট নির্বাচন নিয়ে রিজভীর বক্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়েছে কোম্পানীগঞ্জ আ.লীগখালেদা জিয়ার গুলশান কার্যালয়ের ইমাম মারা গেছেনইসলাম অবমাননাকর বক্তব্য থেকে পিছু হটলেন গ্রিসের সেই ধর্মগুরুহোয়াইট হাউজের বিদায়ী ভাষণে ট্রাম্প বললেন, ‘যা করতে এসেছিলাম, তার সবই করেছি’কক্সবাজারে মা-মেয়েকে কুপিয়ে হত্যাচাঁদপুরে পিঠা বিক্রির ২০ বছর উপলক্ষ্যে ফ্রিতে খাওয়াবেন বিক্রেতা!

  • আজ ৬ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

বগুড়ায় প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত

◷ ১২:০৯ অপরাহ্ন ৷ শুক্রবার, এপ্রিল ১৭, ২০২০ রাজশাহী
1

সাখাওয়াত হোসেন জুম্মা, বগুড়া প্রতিনিধি: বগুড়ায় প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। আক্রান্ত ব্যক্তি একজন পুলিশ সদস্য বলে জানা গেছে।

তার বাড়ী জেলার আদমদীঘি উপজেলার ইউনিয়নের শাওইল নশরতপুর গ্রামে, এবং তিনি ওই গ্রামের মোঃ দেলোয়ারের ছেলে আহসান হাবিব (২৮)। বর্তমানে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) তে কর্মরত।

তিনি ফেব্রুয়ারী মাসে তার কর্মস্থল ডিএমপিতে যোগ দেন। এর আগে তিনি জামালপুরে র‌্যাবে কর্মরত ছিলেন। মোহাম্মাদ আলী হাসপাতালের আরএমও ডাঃ শফিক আমিন কাজল জানান, চলতি মাসের ১০ এপ্রিল তিনি ছুটিতে গ্রামের বাড়ীতে আসেন।

১৩ এপ্রিল সর্দি কাশির জন্য ঔষধ নিতে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যান। এসময় তার নমুনা সংগ্রহ করা হয়। পরে ১৫ এপ্রিল তার নমুনা রাজশাহী ল্যাব এ পাঠানো হলে ১৬ এপ্রিল পরীার রিপোর্টে করোনা পজিটিভ আসে।

এখবর জানার পর পরই আক্রান্ত ব্যক্তিকে মোহাম্মদ আলী হাসপাতালের আইসলোশন ইউনিটে নেয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯টায় আদমদীঘি উপজেলা স্বাস্থ্য প:প: কর্মকর্তা ডা: শহীদুল্লাহ দেওয়ান বিষয়টি নিশ্চিত করার পর উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা একেএম আব্দুল্লাহ বিন রশিদ আদমদীঘি উপজেলা লকডাউন ঘোষণা করেছে।

আরও পড়ুন… বগুড়ায় করোনা উপসর্গ নিয়ে একজনের মৃত্যু

সাখাওয়াত হোসেন জুম্মা, বগুড়া প্রতিনিধি: বগুড়ায় করোনার উপসর্গ নিয়ে আইসোলেশন ইউনিটে ভর্তি হওয়ার পর বৃহস্পতিবার রাতে এক ব্যক্তি মারা গেছেন।

তার বাড়ি বগুড়া শহরের সাবগ্রাম চাঁন পাড়ায়।

বগুড়া মোহাম্মদ আলী হাসপাতালের তত্বাবধায়ক ডা. এটিএম নুরুজ্জামান সঞ্চয় জানান, ৪২ বছর বয়সী ওই ব্যক্তি জ্বর, শ্বাসকষ্ট ও পাতলা পায়খানার লণ নিয়ে বৃহস্পতিবার বিকেলে মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে ভর্তি হন। সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ৮টা ৪৫মিনিটে তার মৃত্যু হয়। তার নমুনা পরীার জন্য সংগ্রহ করা হয়েছে।

নিহত ওই ব্যক্তির ছেলে জানিয়েছেন, তার বাবা পেশায় একজন মুদি দোকানদার। প্রায় ৫দিন থেকে তার বাবা জ্বর, শ্বাসকষ্ট ও কাশিতে ভুগছিলেন। এরপর তিনি স্থানীয় এক পল্লী চিকিৎসকের কাছ থেকে ওষুধ সেবন করেন। কিন্তু তাতেও কোন কাজ হয়নি বরং তার পাতলা পায়খানা শুরু হয়। ফলে বৃহস্পতিবার বিকেলে মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে তাকে ভর্তি করা হয়।

বগুড়া সদর থানার ওসি এস এম বদিউজ্জামান জানিয়েছেন, করোনা উপসর্গ নিয়ে ওই ব্যক্তির মৃত্যুর পর পরই রাতে তার বাড়ি লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে।