টাঙ্গাইলের হাট-বাজারে মানুষের উপচে পড়া ভিড়


❏ শুক্রবার, এপ্রিল ১৭, ২০২০ ঢাকা

অন্তু দাস হৃদয়, স্টাফ রিপোটার:টাঙ্গাইলে ক্রমেই বেড়ে চলছে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। গেল রোববার ভূঞাপুর উপজেলায় তিনজনসহ জেলায় মোট নয় ব্যক্তি করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

তারপরও মানুষের মাঝে স্বাস্থ্য সচেতনতা সৃষ্টি হচ্ছে না। মানছে না স্বাস্থ্যবিধি, বজায় রাখছে না সামাজিক দূরত্ব। সকাল বিকেলে হাট-বাজার অলি-গলিতে মানুষের উপচে পড়া ভিড় ল্য করা গেছে। বিনা কারণে, নানা অজুহাতে ঘরের বাইরে বের হয়ে আসছে মানুষজন।

পুলিশ, সেনাবাহিনী ও স্থানীয় প্রশাসনের লোকজন ও তাদের গাড়ি দেখে একটু আড়াল হলেও কিছুক্ষণ পর আবারও সেই জটলার সৃষ্টি করছে।

টাঙ্গাইলের প্রতিটি উপজেলার বিভিন্ন হাট-বাজারসহ অলিতে-গলিতে একই চিত্র দেখা যাচ্ছে।

এতে করে করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে নেয়া পদপে কাজে আসছে না। যদিও সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে নিরলস কাজ করে যাচ্ছে প্রশাসন। জনগণকে অতি প্রয়োজন ছাড়া ঘরের বাইরে বের হতে নিষেধ করা হচ্ছে। বিভিন্ন জায়গায় সেনাবাহিনী ও পুলিশ বের হওয়ার কারণ জানতে চাইছে। বের না হওয়ার জন্য সতর্ক করে মাইকিং করা হচ্ছে। এতো কিছুর পরও মানুষকে বাড়ি থেকে বের হওয়া থেকে বিরত রাখা যাচ্ছে না।

আজ সকালে টাঙ্গাইল জেলার ভূঞাপুর উপজেলার বঙ্গবন্ধুসেতু পূর্ব পাড় পাথাইলকান্দী বাজারে গিয়ে মানুষের উপচে পড়া ভিড় ল্য করা গেছে।

সামাজিক দূরত্ব না মেনেই বাজার করছে মানুষজন। তিন ফুটতো দূরের কথা তিন ইঞ্চি পরিমান দূরত্ব বজায় রাখছেন না তারা। জেলার বিভিন্ন এলাকার বাজার একই চিত্র। এতে করে করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধ ব্যবস্থা খুব একটা কাজে আসবে না বলে মনে করেছে বিশিষ্টজনেরা।

এ প্রসঙ্গে টাঙ্গাইল জেলা প্রশাসক মো.শহীদুল ইসলাম বলেন , সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার জন্য হাট-বাজারগুলো খোলা স্থানে বসানোর নির্দেশ দেয়া হয়েছে। সেনাবাহিনী, পুলিশ, স্থানীয় প্রশাসন ও স্বাস্থ্য বিভাগ নিরলসভাবে মাঠে কাজ করে যাচ্ছে। যাতে করে জনগণ সামাজিক দূরত্ব মেনে চলাচল করে।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন