• আজ রবিবার, ১৭ শ্রাবণ, ১৪২৮ ৷ ১ আগস্ট, ২০২১ ৷

আমরা এই দুর্যোগের মধ্যে কাদা ছোড়াছুড়ি চাই না: ওবায়দুল কাদের


❏ শনিবার, এপ্রিল ১৮, ২০২০ জাতীয়

সময়ের কন্ঠস্বর ডেস্ক: আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বিএনপি নেতাদের প্রতি পরামর্শ দেয়ার নামে মানুষের মধ্যে বিভ্রান্তি না ছড়াতে আহ্বান জানিয়েছেন ।

তিনি বলেন, এখন একমাত্র ফোকাসই হচ্ছে মানুষের পাশে দাঁড়ানো। সবার সম্মিলিত প্রয়াস ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দৃঢ় নেতৃত্বে এই সংকট উত্তরণ সম্ভব।

শনিবার দুপুরে রাজধানীর সংসদ ভবনস্থ সরকারি বাসভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

করোনাভাইরাস প্রতিরোধে ‘জাতীয় টাস্কফোর্স’ গঠনের দাবি প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, মির্জা ফখরুল (বিএনপি মহাসচিব) জাতীয় টাস্কফোর্স গঠনের আহ্বান জানিয়েছেন। কিন্তু করোনাভাইরাস মোকাবেলায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইতিমধ্যে জাতীয় কমিটি গঠন করেছেন। কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে এই মুহূর্তে জাতীয় টাস্কফোর্স গঠনের প্রশ্ন কেন? যেখানে প্রধানমন্ত্রী নিজেই উদ্যোগ নিয়ে জাতীয় কমিটি গঠন করেছেন এবং সে কমিটি করোনা প্রতিরোধে সর্বাত্মক প্রয়াস চালিয়ে যাচ্ছেন।

সেতুমন্ত্রী বলেন, যুক্তরাজ্য সরকার টাস্কফোর্স গঠন করেছেন করোনাভাইরাসের নতুন ভ্যাকসিন আবিস্কারের জন্য। যুক্তরাষ্ট্রেও করোনাভাইরাসের কারণে মেডিকেল টাস্কফোর্স গঠিত হয়েছে। দুই দেশেই গঠিত হয়েছে মেডিকেল টাস্কফোর্স। মির্জা ফখরুল জাতীয় টাস্কফোর্স বলতে কী বোঝোতে চান? এর ব্যাখ্যাটা কী? তিনি পরিস্কার করে কিছু বলেননি। এটা কি রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত কোনো বিষয়?

তিনি আরও বলেন, মির্জা ফখরুল কী কিছুদিন পর আবার জাতীয় দুর্যোগ টাস্কফোর্সের কথা বলবেন? তারপর জাতীয় সরকার গঠনের কথা বলবেন? এটা তো আবার রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বক্তব্য। এটা তো আজকের সংকটে করোনো প্রতিরোধে যে দায়িত্ব সেই দায়িত্ব থেকে বিচ্যুতি।

করোনাভাইরাস প্রতিরোধে শেখ হাসিনার সরকার সর্বাত্মক প্রয়াস চালিয়ে যাচ্ছে উল্লেখ করে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, সরকারের কোনো ভুল হলে ভালো পরামর্শ দিলে আপত্তি নেই। কিন্তু আজ সরকারের সমালোচনা করতে গিয়ে পরামর্শের নামে বিভিন্ন বক্তব্য দিয়ে মানুষের মধ্যে বিভ্রান্তি ছড়ানো কোনো দায়িত্বশীল রাজনৈতিক নেতার কাজ বলে মনে করি না।

এ সময় প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঘরে থাকতে সবার প্রতি আহ্বান জনিয়ে তিনি বলেন, আমরা আপনাদের পাশে আছি। ইনশাআল্লাহ এ সংকট মোকাবেলা করে জয়ী হব।

ঘোষিত প্রণোদনা প্যাকেজ নিয়ে বিএনপি নেতারা রাজনৈতিক বক্তব্য দিচ্ছেন বলেও দাবি করেন সেতুমন্ত্রী। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যখন সবদিক বিবেচনা করে সবার স্বার্থ অক্ষুণ্ণ রেখে ফ্রন্টলাইন ওয়ার্কারদের প্রধান্য দিয়ে প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণার করার পর সর্বমহলে প্রশংসিত হয়েছে।

এমনকি মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সাহেবও ধন্যবাদ জানিয়েছেন। অথচ এখন বিরোধিতার খাতিরে বিরোধিতা করছেন। সরকারের বিরুদ্ধে বিভ্রান্তি ছড়িয়ে রাজনৈতিক ফায়দা লোটার জন্য প্রণোদনা প্যাকেজ নিয়ে বিএনপি বিরূপ মন্তব্য করা শুরু করেছে। এ মানবিক ক্রান্তিকালে একজন রাজনৈতিক নেতার কাছ থেকে আমরা এ ধরনের দায়িত্বজ্ঞানহীন বক্তব্য প্রত্যাশা করি না।

এ সময় শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ জনগণের পাশে দাঁড়িয়ে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সর্বোচ্চ প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে বলেও উল্লেখ করেন ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেন, আমরা এই দুর্যোগের মধ্যে কাদা ছোড়াছুড়িতে লিপ্ত হতে চাই না। তারপরও বিএনপি নেতারা ঘরবন্দি খেটে খাওয়া মানুষের পাশে না দাঁড়িয়ে প্রতিদিন সংবাদ সম্মেলন ডেকে একের পর এক মিথ্যাচার বিভ্রান্তিমূলক মন্তব্য করে জনগণের মধ্যে আতঙ্ক সৃষ্টির অপপ্রয়াস চালাচ্ছেন।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন