মির্জাপুরে টয়লেটের ভিতরে গলায় ফাঁস দিয়ে গৃহবধূর আত্মহত্যা

মো. সানোয়ার হোসেন, মির্জাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি- টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে পারুল আক্তার (৩৫) নামের এক গৃহবধূ টয়লেটের ভিতরে গলায় রশি পেচিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

শনিবার (১৮ এপ্রিল) ভোরে উপজেলার ৯ নং বহুরিয়া ইউনিয়নের বড় গবড়া গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে।

নিহত বড় গবড়া গ্রামের ইয়াছিন মিয়ার স্ত্রী এবং একই উপজেলার গোহাইলবাড়ী গ্রামের মো. সিরজত আলীর মেয়ে বলে জানা গেছে। শনিবার দুপুরে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করেছে মির্জাপুর থানা পুলিশ।

পরিবারিক সূত্র জানায়, প্রতিদিনের মতো (১৭ এপ্রিল) শুক্রবার রাতের খাবার খেয়ে পারুল আক্তার তার স্বামীর সাথে ঘুমায়। কিন্তু ভোর সকালে ঘরের দরজা খুলা দেখতে পেয়ে স্বামী ইয়াছিন মিয়া তাকে খুঁজতে থাকে। পরে অনেক খুঁজাখুজির পর টয়লেটের ভিতরে গিয়ে দেখে গলায় রশি পেচানো অবস্থায় আত্মহত্যা করেছে। পরে এলাকাবাসী থানা পুলিশকে খবর দেয়। নিহত পারুল আক্তারের ৪ মাস বয়সের একটি ছেলে রয়েছে।

এ বিষয়ে মির্জাপুর থানার উপ-পরিদর্শক ফয়েজ উদ্দিন জানান, আত্মহত্যার ঘটনার সংবাদ পেয়ে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য টাঙ্গাইল মেডিকেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। রিপোর্ট পাওয়ার পর আসল কারণ জানা যাবে।

তবে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা যাচ্ছে পারুল আক্তার আত্মহত্যা করেছে। এ আত্মহত্যার ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করা হয়েছে।

Sharing is.

Share on facebook
Share with others
Share on google
Share On Google+
Share on twitter
Share On Twitter