🕓 সংবাদ শিরোনাম
  • আজ বৃহস্পতিবার, ২৪ অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ ৷ ৯ ডিসেম্বর, ২০২১ ৷

জানাজায় লাখো মানুষের ঢল, হোম কোয়ারেন্টিনে ৪ গ্রামের বাসিন্দা

pic_janaza_3
❏ শনিবার, এপ্রিল ১৮, ২০২০ চট্টগ্রাম

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্কঃ ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলার বেড়তলা গ্রামে লকডাউন উপেক্ষা করে মাওলানা যুবায়ের আহমদ আনসারীর জানাজায় লাখো মানুষের ঢল নামে। এই জানাজায় অংশ নেওয়ার সূত্র ধরে বেড়তলাসহ আশপাশের কয়েকটি গ্রামের বাসিন্দাকে ১৪ দিনের হোম কোয়ারেন্টিনে থাকার নির্দেশ দিয়েছে জেলা প্রশাসন।

শনিবার (১৮ এপ্রিল) সন্ধ্যায় গ্রামগুলোতে মাইকিং করে এ নির্দেশনার বিষয়ে জানিয়ে দেওয়া হয়। বেড়তলা ছাড়া বাকি গ্রামগুলো হলো- উপজেলার পানিশ্বর ইউনিয়নের শান্তিনগর, সীতাহরণ ও বড়ইবাড়ি গ্রাম।

এ বিষয়ে সরাইল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আবু সালেহ মো. মুসা বলেন, উদ্ভূত পরিস্থিতিতে উপজেলার বেড়তলা গ্রাম, সীতাহরণ, শান্তিনগর ও বগইর গ্রামে আমরা মাইকিং করে বলে দিয়েছি কেউ যেন ঘর থেকে বের না হয়। আগামী ১৪-১৫ দিন তারা যেন এই কোয়ারেন্টিন মেনে চলে।

তিনি বলেন, স্থানীয় ইউপি সদস্যদের নেতৃত্বে যুবসমাজের ব্যক্তিদের দিয়ে আমরা কমিটি গঠন করে দিচ্ছি। তারা যেন নিত্যপ্রয়াজনীয় পণ্যগুলো বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দেন। তাদের সুরক্ষার জন্য একান্তই হাসপাতালে যাওয়ার প্রয়োজন ছাড়া কেউ যেন বের না হয়। আমরা হ্যান্ডমাইক ব্যবহার করে সবাইকে বলে দিয়েছি।

তিনি আরও বলেন, যেহেতু অনেক মানুষ অনাকাঙ্ক্ষিতভাবে এখানে (বেড়তলা) ছিল। তাই এই এলাকার মানুষগুলো যেন স্বাস্থ্য ঝুঁকি থেকে নিজেদের এড়িয়ে চলতে পারেন সে জন্য আমরা এই ব্যবস্থা নিয়েছি।

সরাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহাদাৎ হোসেন টিটু জানান, প্রশাসনের নির্দেশে গ্রামের বাসিন্দাদের হোম কোয়ারেন্টিনে থাকার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। গ্রামবাসীর হোম কোয়ারেন্টিন নিশ্চত করতে এলাকাগুলোতে সার্বক্ষণিক পুলিশের টহল চলবে।

উল্লেখ্য শনিবার সকাল ১০টায় লাখো মানুষের অংশগ্রহণে বেড়তলা গ্রামে জুবায়ের আহমদ আনসারীর নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় স্থানীয় মাদ্রাসার প্রান্তর ছাড়িয়ে জানাজার সারি দীর্ঘ হয় ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের বিস্তীর্ণ এলাকা পর্যন্ত। শীর্ষ আলেম, মাদ্রাসা ছাত্র, সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে লোকজন ওই জানাজায় অংশ নেয়।