করোনায় ঘরবন্দি শিশুদের নিয়ে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ৪ নির্দেশনা

Mother reading a book to her daughter
❏ শনিবার, এপ্রিল ১৮, ২০২০ ফিচার

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ প্রতিদিনই বাড়ছে করোনা আতঙ্ক। প্রায় এক মাস বন্ধ হয়ে আছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো। সাধারণ ছুটির কারণে চলাফেরাতেও রয়েছে কড়া বিধিনিষেধ। এসবের মধ্যে একপ্রকার গৃহবন্দি শিশুরা। এই বন্দিদশায় শিশুরা পড়েছে বিপাকে। তারা বাধ্য হয়ে ডিজিটাল মাধ্যমে ডুবে থেকে সময় পার করছে।

তবে স্মার্টফোন, টিভি আর কম্পিউটারের সঙ্গে সময় কাটাতে অভ্যস্ত হয়ে পড়া ভবিষ্যতের জন্য অত্যন্ত বিপজ্জনক হতে পারে। কিন্তু শিশুরা সময় কাটাবে কীভাবে তাও একটা বড় প্রশ্ন। তাই শিশুদের নিয়ে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) দিয়েছে নির্দেশনা।

শিশুদের জন্য বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নির্দেশনায় বলা হচ্ছে-

১. ঘরবন্দি অবস্থায় দৌড়ানোর অভ্যাস করানো সম্ভব নয়। তাই খেলার ছলে স্কিপিং বা লাফ দড়ির সাহায্য সন্তানকে শরীরচর্চা করাতে পারেন।

২. সন্তানের সঙ্গে খেলায় সঙ্গ দিন। ওদের সঙ্গে খেলতে খেলতে বাড়ির বড়দেরও খানিকটা শরীরচর্চা হয়ে যাবে।

৩. পড়াশুনার বাইরে অবসর সময় কাটানোর জন্য সন্তানের হাতে মোবাইল ফোনের পরিবর্তে তুলে দিন গল্পের বই।

৪. বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নির্দেশনা অনুযায়ী, ৫ বছরের কম বয়সী শিশুদের টিভি, মোবাইল বা কম্পিউটারে সঙ্গে যতটা কম সময় কাটাবে, ততই ভালো। ৫ বছরের কম বয়সী শিশুরা দিনে বড়জোড় ১ ঘণ্টা টিভি বা কম্পিউটারের সঙ্গে সময় কাটাতে পারে।

তথ্যসূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন