🕓 সংবাদ শিরোনাম

গাজা উপত্যকায় ইসরাইলি হামলায় কমপক্ষে ৩৩ জনের মৃত্যুচট্টগ্রামে ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত ২৫, মৃত্যু ৪সুনামগঞ্জে বিদ্যুতায়িত হয়ে মা ও ছেলেসহ ৩ জনের মর্মান্তিক মৃত্যুসৌদি আসতে দিতে হবে করোনা ভ্যাকসিন, নয়তো থাকতে হবে কোয়ারেন্টিনেএখনো ঈদ করতে বাড়ী আসছে দক্ষিনঅঞ্চলের ২১জেলার হাজার হাজার মানুষকরোনার হটস্পট কেরানীগঞ্জ, ঈদে ছাপ নেই স্বাস্থ্য বিধিরবস্তার দোকানে মাদকের ব্যবসা, দুই জন আটকডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে সাতক্ষীরা জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি গ্রেপ্তারভারত থেকে চট্টগ্রামে আসা ৪ জনের করোনা শনাক্ত ত্রিশালে পণ্য বিপনন মনিটরিং কমিটির মতবিনিময় সভা

  • আজ রবিবার, ২ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ ৷ ১৬ মে, ২০২১ ৷

ইতালিতে সুস্থ হয়ে ঘরে ফিরলেন ৪৭ হাজার ৫৫ জন করোনা রোগী

italy
❏ সোমবার, এপ্রিল ২০, ২০২০ আন্তর্জাতিক

ইসমাইল হোসেন স্বপন, ইতালিঃ প্রাণঘাতি করোনার প্রকোপ কমতে শুরু করেছে ইতালিতে। গত সপ্তাহের তুলনায় এই সপ্তাহে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত ও মৃতের হার কম। সেই সাথে বাড়ছে সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছাড়ার সংখ্যা।

গত একদিনে দেশটিতে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ২ হাজার ১২৮ জন। সব মিলিয়ে প্রায় ৪৭ হাজার ৫৫ জন সুস্থ হয়ে নিজ পরিবারের কাছে ফিরেছেন।

এদিকে, রবিবার অন্যান্য দিনের চেয়ে নতুন আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা কমেছে বলে জানিয়েছে সরকার। দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের প্রতিবেদন অনুযায়ী, নতুন করে তিন হাজার ৪৭ জনের শরীরে এ ভাইরাস শনাক্ত করা হয়েছে। আগের দিন শনিবার এ সংখ্যা ছিল তিন হাজার ৪৯১ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারিয়েছেন ৪৩৩ জনের। আগের দিন শনিবার এ সংখ্যা ছিল ৪৮২ জন আর শুক্রবার ৫৭৫ জনের প্রাণহানি হয়। যা অন্যান্য দিনের তুলানায় আজ মৃত্যুর হার কম।

রবিবার (১৯ এপ্রিল) নিয়মিত প্রেস ব্রিফিংয়ে নাগরিক সুরক্ষা সংস্থার প্রধান অ্যাঞ্জেলো বোরেল্লি জানান, ইতালিতে এখন পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ৭৮ হাজার ৯৭২ জন। মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৩ হাজার ৬৬০ জনে।

এদিকে ইতালিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে ৮ বাংলাদেশির মৃত্যু হয়েছে। তবে ঠিক কতজন বাংলাদেশি করোনায় আক্রান্ত তার সঠিক তথ্য জানা যায়নি।

করোনা সংক্রমণ রোধে দেশটিতে লকডাউনের সময় ৩ মে পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। তবে এর আগে জরুরি কারণে কিছু কিছু এলাকায় লকডাউন তুলে নেওয়া হতে পারে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

দেশটির প্রায় ৬ কোটি নাগরিকদের সব ধরনের সুযোগ সুবিধা, খাদ্যসামগ্রীর নিশ্চয়তার জন্য সামরিক বাহিনীর সদস্যরা কাজ করছেন। এ ছাড়া অর্থনৈতিক জীবন চাকা সচল রাখতে প্রত্যেকের জন্য বোনাস ঘোষণা করেছে ইতালি সরকার।