ইতালিতে বৈধতা পেতে যাচ্ছেন ছয় লাখ অবৈধ অভিবাসী

itale
❏ সোমবার, এপ্রিল ২০, ২০২০ প্রবাসের কথা

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ করোনা পরিস্থিতির মধ্যেই গত ১৮ এপ্রিল ইতালি সরকার ঘোষণা করেছে প্রায় ৬ লাখ অবৈধ অভিবাসীকে বৈধতা দেয়ার প্রক্রিয়ার ঘোষণা খুব শিগগিরই আসবে। এ কারণে ইতোমধ্যে ১৬ পৃষ্ঠার একটি খসড়া আইন প্রস্তুত করেছে ইতালি সরকার।

খসড়া আইনে বলা হয়েছে ইতালির কৃষি, মৎস্য, পর্যটনসহ অন্যান্য কাজের অগ্রাধিকার দিয়ে কাজের চুক্তির মাধ্যমে কাগজ দেয়া হবে। প্রথমে মালিকপক্ষ তার কর্মীকে এক বছরের জন্য চুক্তিতে রাখবে।

ইতালি সরকারের সকল প্রক্রিয়া অনুসরণ করলে চুক্তির মেয়াদ বাড়াবে এবং এই প্রক্রিয়ায় নির্দিষ্ট কর্ম মেয়াদের চুক্তিতে অবৈধ অভিবাসী কর্মীদেরকে ইতালি সরকার বৈধতা দিবে। ইতালিতে একবার বৈধ হতে পারলে আর সহজে কেউ অবৈধ হন না।

এ বিষয়ে দেশটির কৃষিমন্ত্রী তেরেসা বেল্লানোভা সংসদে এক আলোচনায় বলেন, করোনা প্রভাবে ইতালির কৃষিখাতে ব্যাপক ধ্বস নেমে এসেছে। এমতাবস্থায় দেশটির কৃষিখাতকে উন্নত করার জন্য অনেক জনশক্তি প্রয়োজন। এছাড়াও করোনার কারনে এবছর বিশ্বের অন্যান্য দেশ থেকে জনশক্তি আমদানি করা সম্ভব না। এমতাবস্থায় যদি এই খাতে জনশক্তি না প্রয়োগ করা হয় তাহলে ভবিষ্যতে ইতালিকে খাদ্য সঙ্কটে পড়তে হবে। তাই এসব অবৈধ অভিবাসীদের বৈধ করে বিভিন্ন খাতে কাজ করার সুযোগ দেয়া উচিৎ।

এ ব্যাপারে ইতালির শ্রম মন্ত্রণালয় থেকে বলা হয়েছে ‘করোনা’ সংকটকালের বিশেষ বিবেচনায় ইতালি সরকার অবৈধ অভিবাসীদের বৈধতা দেবার এই প্রক্রিয়ার খসড়া আইন খুব শীঘ্রই পার্লামেন্টে উপস্থাপন করে পাশ করবে।

এই ঘোষণায় ইতালিতে বিপুল সংখ্যক অবৈধ অভিবাসীর সাথে হাজার হাজার বাংলাদেশিসহ প্রায় ৬ লাখ অবৈধ অভিবাসীর মুখে হাসি ফুটলো। বর্তমানে দেশটিতে কতজন অবৈধ বাংলাদেশী রয়েছে তার সঠিক হিসেব নেই তবে ধারণা করা হচ্ছে প্রায় ৬০ হাজার অবৈধ বাঙ্গালী রয়েছেন। তারা দীর্ঘ সময় ধরে পরিবার থেকে দূরে রয়েছে। বৈধ কাগজপত্রের জন্য নিজ দেশে যেতে পারছেন না।

উল্লেখ্য, সর্বশেষ ২০১৩ সালে ইতালিয়ান সরকার ঘোষণা দিয়ে সকল অবৈধ অভিবাসীদের বৈধ করে নিয়েছিল।