🕓 সংবাদ শিরোনাম

খেলার আগে মাঠে ফিলিস্তিনের পতাকা ওড়ালেন কুড়িগ্রামের ক্রিকেটারেরাপাঁচ ঘণ্টা আটকে রেখে থানায় নেওয়া হলো প্রথম আলোর রোজিনা ইসলামকেকর্মস্থলে ফিরতে গাদাগাদি করে রাজধানীমুখী লাখো মানুষশেরপুরে পৃথক ঘটনায় একদিনে ৭ জনের মৃত্যুএক বিয়ে করে দ্বিতীয় বিয়ের জন্যে বড়যাত্রীসহ খুলনা গেল যুবক!আমার মৃত্যুর জন্য রনি দায়ী! চিরকুট লিখে স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যাইসরাইলীয় আগ্রাসনের  বিরুদ্ধে ইসলামী বিশ্বের নিন্দার নেতৃত্বে সৌদি আরবত্রিশালে সড়ক দূর্ঘটনায় ৩ জনের মৃত্যুতে নিহতের বাড়ীতে চলছে শোকের মাতমকলাপাড়ায় এক সন্তানের জননীর মরদেহ উদ্ধারটাঙ্গাইলে কৃষক শুকুর মাহমুদ হত্যা মামলায় গ্রেফতার-১

  • আজ মঙ্গলবার, ৪ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ ৷ ১৮ মে, ২০২১ ৷

অস্ত্রোপচারের পর কিম জং উনের শারীরিক অবস্থা আশঙ্কাজনক


❏ মঙ্গলবার, এপ্রিল ২১, ২০২০ আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক- উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং-উনের হৃদযন্ত্রে অস্ত্রোপচারের পর তার শারীরিক অবস্থার গুরুতর অবনতি হয়েছে। আজ মঙ্গলবার মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত ১৫ এপ্রিল উত্তর কোরিয়ার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বার্ষিক উদযাপনে কিম অনুপস্থিত ছিলেন। এরপরই তার শারীরিক অবস্থা নিয়ে প্রশ্ন ওঠে। এর আগে গত ১১ এপ্রিল সরকারি এক বৈঠকে তাকে শেষবার দেখা গিয়েছিল।

দেশটির সিআইএর সাবেক উপ-বিভাগীয় প্রধান ব্রুস ক্লিংনার সিএনএনকে বলেছিলেন, ‘কিমের স্বাস্থ্য (ধূমপান, হৃদযন্ত্র এবং মস্তিষ্ক) সম্পর্কে বেশ কয়েকটি সাম্প্রতিক গুজব ছড়িয়ে পড়েছে। তাকে যদি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়, তবে এতেই বোঝা যাবে যে কেন তিনি ১৫ এপ্রিলের গুরুত্বপূর্ণ উদযাপনে উপস্থিত ছিলেন না। কিন্তু বছরের পর বছর ধরে কিম জং-উন বা তার পিতা সম্পর্কে বেশ কয়েকটি মিথ্যা স্বাস্থ্য গুজব ছড়িয়ে পড়ে। আমাদের অপেক্ষা করতে হবে এবং দেখতে হবে।’

আরেক মার্কিন কর্মকর্তা জানান, কিম অসুস্থতার খবর বিশ্বাস্য হলেও তা কতটা‌ ‘গুরুতর’ সেটি বোঝা কঠিন।

দক্ষিণ কোরিয়াভিত্তিক অনলাইন সংবাদমাধ্যম ‘ডেইলি এনকে’ জানায়, ১২ এপ্রিল কিম জং-উনের হৃদযন্ত্রে অস্ত্রোপচার হয়েছে। অতিরিক্ত ধূমপান, মুটিয়ে যাওয়া এবং অধিক পরিশ্রমের কারণে অসুস্থ হয়ে পড়ায় তার হৃদযন্ত্রে এ অস্ত্রোপচার করা হয়। তিনি এখন হিয়াংসান কাউন্টিতে তার ভিলায় বিশ্রাম নিচ্ছেন।

এদিকে, ৩৬ বছর বয়সী এ নেতার শারীরিক অবস্থার উন্নতি হওয়ায়, তার চিকিৎসায় নিয়োজিত মেডিক্যাল টিমের অধিকাংশ সদস্য ১৯ এপ্রিল পিয়ংইয়ং ফিরে যান। তবে তার সুস্থতা পর্যবেক্ষণের জন্য কয়েকজন সেখানেই রয়ে গেছেন।

এদিকে যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদ এবং গোয়েন্দা বিভাগের পরিচালকের দপ্তর এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হয়নি।