🕓 সংবাদ শিরোনাম

কর্মস্থলে ফিরতে গাদাগাদি করে রাজধানীমুখী লাখো মানুষশেরপুরে পৃথক ঘটনায় একদিনে ৭ জনের মৃত্যুএক বিয়ে করে দ্বিতীয় বিয়ের জন্যে বড়যাত্রীসহ খুলনা গেল যুবক!আমার মৃত্যুর জন্য রনি দায়ী! চিরকুট লিখে স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যাইসরাইলীয় আগ্রাসনের  বিরুদ্ধে ইসলামী বিশ্বের নিন্দার নেতৃত্বে সৌদি আরবত্রিশালে সড়ক দূর্ঘটনায় ৩ জনের মৃত্যুতে নিহতের বাড়ীতে চলছে শোকের মাতমকলাপাড়ায় এক সন্তানের জননীর মরদেহ উদ্ধারটাঙ্গাইলে কৃষক শুকুর মাহমুদ হত্যা মামলায় গ্রেফতার-১ফরিদপুরে নানা আয়োজনে প্রধানমন্ত্রীর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালিতজামালপুরে ঘর মেরামতের সময় বিদ্যুৎস্পৃষ্টে তিন জনের মৃত্যু

  • আজ সোমবার, ৩ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ ৷ ১৭ মে, ২০২১ ৷

করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ২৫ লাখ ছাড়িয়েছে

corona
❏ মঙ্গলবার, এপ্রিল ২১, ২০২০ আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ বিশ্বজুড়ে ঝড়োগতিতে ছড়িয়ে পড়ছে কোভিড-১৯ মহামারি। মোট আক্রান্তের সংখ্যা এখন ২৫ লাখ ৩ হাজার ৭২ জন। এর মধ্যে প্রাণ হারিয়েছেন ১ লাখ ৭০ হাজারের বেশি। গত ২৪ ঘন্টায় প্রায় হারিয়েছেন ৫৩৫০ জন এবং নতুন আক্রান্ত হয়েছেন ৭৪ হাজার।

আন্তর্জাতিক জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ্য অনুযায়ী, বৈশ্বিক করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় গত ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড সংখ্যক মারা গেছে যুক্তরাষ্ট্রে। দেশটিতে একদিনেই মারা গেছে ১৯৩৯ জন। যুক্তরাষ্ট্রে মোট মৃত্যু ৪২ হাজার ৫১৪। নতুন আক্রান্ত হয়েছে ২৮ হাজার ১২৩।

২৪ ঘণ্টায় করোনায় সর্বাধিক মৃত্যুর দিক দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের পরেই আছে ফ্রান্স। দেশটিতে নতুন ২ হাজার ৪৪৯ জন রোগী শনাক্তের খবর পাওয়া গেছে। সব মিলিয়ে মারা গেছেন ২০ হাজার ২৬৫ জন। একদিনেই মারা গেছে ৫৪৭ জন।

ইউরোপের অপর দুই দেশ স্পেন এবং ইতালিতেও মৃত্যুর মিছিল কিছুটা শিথিল হচ্ছে। দেশদুটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় যথাক্রমে ৩৯৯ এবং ৪৫৪ জনের মৃত্যুর তথ্য পাওয়া গেছে।

ইতালিতে সব মিলিয়ে মারা গেছেন ২৪ হাজার ১১৪ জন।যুক্তরাষ্ট্রের পর ইটালিতে মৃত্যু সংখ্যা সবচেয়ে বেশি, মৃত্যুর আধিক্যের দিক দিয়ে চতুর্থ দেশ স্পেন। দেশটিতে ২৪ হাজার ৮৫২ জন করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়ার তথ্য মিলেছে। এরপর যুক্তরাজ্য, দেশটিতে মোট মৃত্যু ১৬ হাজার ৫০৯ জন।

বৈশ্বিক এ মহামারীর থাবা লেগেছে বাংলাদেশেও। আইইডিসিআরের তথ্যানুযায়ী, এখন পর্যন্ত দেশে করোনায় মোট শনাক্তের সংখ্যা ৩ হাজার ৩৮২ জন। আর এতে সংক্রমিত হয়ে এ পর্যন্ত ১১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৮৭ জন।