🕓 সংবাদ শিরোনাম

কর্মস্থলে ফিরতে গাদাগাদি করে রাজধানীমুখী লাখো মানুষশেরপুরে পৃথক ঘটনায় একদিনে ৭ জনের মৃত্যুএক বিয়ে করে দ্বিতীয় বিয়ের জন্যে বড়যাত্রীসহ খুলনা গেল যুবক!আমার মৃত্যুর জন্য রনি দায়ী! চিরকুট লিখে স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যাইসরাইলীয় আগ্রাসনের  বিরুদ্ধে ইসলামী বিশ্বের নিন্দার নেতৃত্বে সৌদি আরবত্রিশালে সড়ক দূর্ঘটনায় ৩ জনের মৃত্যুতে নিহতের বাড়ীতে চলছে শোকের মাতমকলাপাড়ায় এক সন্তানের জননীর মরদেহ উদ্ধারটাঙ্গাইলে কৃষক শুকুর মাহমুদ হত্যা মামলায় গ্রেফতার-১ফরিদপুরে নানা আয়োজনে প্রধানমন্ত্রীর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালিতজামালপুরে ঘর মেরামতের সময় বিদ্যুৎস্পৃষ্টে তিন জনের মৃত্যু

  • আজ সোমবার, ৩ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ ৷ ১৭ মে, ২০২১ ৷

করোনা সংক্রমণ মোকাবিলায় ভিপি নুরের ১০ প্রস্তাব


❏ বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ২৩, ২০২০ স্পট লাইট

সময়ের কন্ঠস্বর ডেস্ক: প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের কারণে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে দেশে চলামান সংকট মোকাবেলায় দশ দফা প্রস্তাব দিয়েছেন ডাকসু ভিপি নুরুল হক নুর।

আজ বৃহস্পতিবার সংবাদ মাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ প্রস্তাবের কথা জানান তিনি।

বিদ্যমান পরিস্থিতিতে প্রাণঘাতী করোনা সংক্রমণ মোকাবিলায় ডাকসু ভিপির দশ দফা প্রস্তাবের মধ্যে রয়েছে- ডাক্তারসহ চিকিৎসাসেবায় নিয়োজিত স্বাস্থ্যকর্মীদের ব্যক্তিগত সুরক্ষা নিশ্চিতের পাশাপাশি তাদের থাকার জন্য হোটেল ও গেস্ট হাউসের ব্যবস্থা করা, জেলা পর্যায়ে করোনা পরীক্ষার ল্যাব স্থাপন করা, প্রয়োজনে দেশের স্বনামধন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের ল্যাবগুলো ব্যবহার উপযোগী করে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের এ কাজে সম্পৃক্ত করা।

এ ছাড়া লকডাউন নিশ্চিতকরণে সেনাবাহিনীকে যথাযথ ক্ষমতা প্রদানসহ আইনশৃঙ্খলায় নিয়োজিতদের বাধাহীনভাবে কাজ করার জন্য যথোপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করাসহ সর্বোচ্চ সুরক্ষার ব্যবস্থা নিশ্চিত করা, ২ কোটি হতদরিদ্রসহ নিম্নআয়ের মানুষদের তালিকা করে মাসিক ভিত্তিতে অন্তত ৩ মাসের খাদ্য সহায়তার ব্যবস্থা করা।

একই সঙ্গে অসহায় নিম্নমধ্যবিত্ত ও মধ্যবিত্ত পরিবারের জন্যও খাদ্য সহায়তার ব্যবস্থা করা, বিভিন্ন বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মজীবীদের সরকারি সমন্বয়ে অন্তত ৩ মাসের বেতন নিশ্চিত করা, উপজেলা ও জেলা কৃষি কর্মকর্তাদের তত্ত্বাবধানে কৃষকদের উৎপাদিত পণ্য সরবরাহ ও বাজারজাত করার ব্যবস্থা গ্রহণ করা।

প্রয়োজনে সরকারিভাবে কৃষকদের কাছ থেকে পণ্য ক্রয় করে খাদ্য সহায়তাভুক্ত পরিবারকে প্রদান করা, দ্রব্যমূল্যের দাম নিয়ন্ত্রণে রাখতে চালকল ও বাজারের প্রতি বিশেষ নজরদারি অব্যাহত রাখার পাশাপাশি অসাধু ব্যবসায়ী, কালোবাজারী ও ত্রাণচোরদের বিরুদ্ধে দ্রুত শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া, গুজব ঠেকাতে এবং তথ্যের অবাধ প্রবাহ নিশ্চিতকরণে সাংবাদিক ও গণমাধ্যমকে নির্বিঘ্নে কাজ করার জন্য উপযুক্ত পরিবেশ সৃষ্টি করা।

শিক্ষক, সাংবাদিক, মসজিদের ইমাম, মুয়াজ্জিন ও স্থানীয় প্রশাসনের সমন্বয়ে 'ত্রাণ সহায়তা'কমিটি গঠন করা, ত্রাণের দাবিতে বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে কোনো ধরনের আইনানুগ ব্যবস্থা না নিয়ে তাদের জন্য ত্রাণের ব্যবস্থা করা এবং ত্রাণচুরির সংবাদ প্রকাশ ও প্রতিবাদকারীদের কোনো ধরনের হয়রানি না করা।

এ বিষয়ে ডাকসু ভিপি নুরুল হক নুর বলেন, বর্তমানে প্রাণঘাতী ও মরণব্যাধি রুপ নেয়া করোনা ভাইরাসকে যুদ্ধের সঙ্গে তুলনা করা হচ্ছে। আর যুদ্ধে যাওয়ার জন্য যথেষ্ট প্রস্তুতি নেয়া উচিত। সে জায়গায় আমাদের ঘাটতি রয়েছে। সেই ঘাটতিগুলো পূরণ করার জন্য আমি এই দশ দফা প্রস্তাবনা দিয়েছি।