যৌতুকের জন্য স্ত্রীকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যা চেষ্টা

tan
❏ বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ২৩, ২০২০ ঢাকা

মোল্লা তোফাজ্জল, টাঙ্গাইল প্রতিনিধিঃ টাঙ্গাইলে স্ত্রীকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যা চেষ্টায় স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ ঘটনায় দরিদ্র ওই দগ্ধ নারীর চিকিৎসার দায়িত্ব নিয়েছেন গোপালপুর থানার ওসি।

গত মঙ্গলবার (২১ এপ্রিল) সকালে জেলার গোপালপুর উপজেলার দক্ষিণ পাথালিয়া সওদাগর পাড়া এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় বুধবার (২২ এপ্রিল) রাতে স্বামী আইয়ুব নবীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়। দগ্ধ গৃহবধু শান্তা আক্তার (৩০) উপজেলার নন্দনপুর গ্রামের মৃত মোক্তার আলীর মেয়ে।

মামলাসূত্রে জানা যায়, ১২ বছর পূর্বে একই উপজেলার দক্ষিণ পাথালিয়া সওদাগর পাড়া গ্রামের মো. আনোয়ার হোসেনের ছেলে মো. আইয়ুব নবীর সাথে ৫০ হাজার টাকা যৌতুকে শান্তার বিয়ে হয়। সুখের সংসারে জম্ম নেয় দুটি ছেলে ও একটি কন্যা সন্তান। কিন্তু অভাবের কারণে সেটি আর ভালো থাকেনি। তিন বছর পূর্বে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন। স্বামীর নির্যাতনের মাত্রা বেড়ে গেলে বাড়ি আশ্রয় নিতে বাধ্য হয় শান্তা। পরে গ্রাম্য শালিসে নির্যাতন না করার অঙ্গীকারে আবার ঘরে ফেরে সে। তবে কিছুদিন পর থেকেই শুরু হয় নতুন যৌতুকের জন্য নির্যাতন। শান্তার পরিবার তা দিতে না পারায় গেল মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে শান্তার শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন লাগিয়ে দেয় স্বামী আইয়ুব নবী।

পরে তার চিৎকারে প্রতিবেশিরা উদ্ধার করে গোপালপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করেণ। সেখানে একদিন রাখার পর বুধবার তার অবস্থার আরও অবনতি হলে, ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়। কিন্তু তাকে ঢাকা নিয়ে চিকিৎসা করানোর সামর্থ্য না থাকায় বুধবার রাতেই গ্রামের বাড়িতে ফিরে আসে। পরে থানায় গিয়ে তার স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা করা হয়।

মামলার বাদী শান্তার ভাই লতিফ জানান, চিকিৎসা করানো সামর্থ্যা নাই আমাদের। তাই বোনকে গ্রামে নিয়ে এসে স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা চালানো হয়। এঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করেছি। বিষয়টি জানার পর থানার ওসি চিকিৎসার দায়িত্ব নিয়ে ঢাকায় পাঠিয়েছেন।

গোপালপুরে থানার আফিসার ইনচার্জ মো. মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, তাদের অর্থনৈতিক অবস্থা খুবই করুণ। মানবিক বোধ থেকেই তার চিকিৎসার প্রাথমিক দায়িত্ব নিয়ে তাকে ঢাকায় পাঠানোর ব্যবস্থা করেছি। মামলা রেকর্ড হয়েছে। আসামী পলাতক রয়েছে।