কোটালীপাড়ায় মেম্বারদের সঙ্গে নিয়ে কৃষকের ক্ষেতের ধান কেটে দিলেন চেয়ারম্যান

❏ শুক্রবার, এপ্রিল ২৪, ২০২০ ঢাকা, দেশের খবর

এইচ এম মেহেদী হাসানাত, স্টাফ রিপোর্টার, গোপালগঞ্জ: মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া উপজেলায় চলতি বোরো মৌসুমে ব্যাপকভাবে ধান কাটার শ্রমিক সংকট দেখা দিয়েছে। এ অবস্থায় দরিদ্র ও বরগাচাষীদের ধান কেটে দেওয়ার উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন কলাবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাইকেল ওঝা।

এরই অংশ হিসেবে আজ শুক্রবার (২৪ এপ্রিল) সকালে চেয়ারম্যান মাইকেল ওঝা তার পরিষদের মেম্বারসহ এলাকার ছাত্র-শিক্ষক, যুবকদের সাথে নিয়ে রামনগর বিলে গিয়ে অধীর বাড়ৈ নামে এক কৃষকের ২ বিঘা জমির ধান কেটে দেন।

চেয়ারম্যান মাইকেল ওঝার বিনাপারিশ্রমিকে ধান কেটে দেওয়ার এ উদ্যোগ গ্রহণ করায় খুশি দরিদ্র কৃষকসহ এলাকাবাসী।

কৃষক অধীর বাড়ৈ বলেন, জমিতে ধান পেকে গেছে। কয়েকদিন ধরে কাটার জন্য শ্রমিক খুঁজছিলাম। কিন্তু কোথাও ধান কাটার শ্রমিক পাচ্ছিলাম না। বিষয়টি চেয়ারম্যান মাইকেল ওঝাকে জানানোর পরে তিনি তার পরিষদের মেম্বারসহ এলাকার ছাত্র- শিক্ষক, যুবকদের নিয়ে আমার ক্ষেতের ধান কেটে দিলো। এই ধান কেটে দেওয়ায় আমার খুব উপকার হয়েছে।

শিক্ষক শেখর বাড়ৈ বলেন, শুধু লোকজন নিয়ে কৃষকের ক্ষেতে গিয়ে ধান কেটে দেওয়া নয়। চেয়ারম্যান মাইকেল ওঝা এলাকায় রাস্তা নির্মাণের সময় শ্রমিকদের সাথে নিজে মাটি কাটেন। নিজে পানিতে নিমে খালের কচুরীপানা উত্তোলন করেন। নিজে মানুষের চলাচলের জন্য এলাকার লোকদেরকে সাথে নিয়ে সাঁকো নির্মাণ করেন। চেয়ারম্যানের এ ধরণের কর্মকান্ডে আমরা খুশি।

চেয়ারম্যান মাইকেল ওঝা বলেন, বর্তমানে আমাদের এ উপজেলায় ধান কাটার জন্য শ্রমিক পাওয়া যাচ্ছেনা। এদিকটা বিবেচনা করে আমি আমার ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ডে মেম্বারদের সমন্বয়ে ৯টি কমিটি গঠন করেছি। এই কমিটি যদি কোন ব্যক্তি ধান কাটার শ্রমিক না পায় তাহলে কমিটির সদস্যরা ওই ব্যক্তির জমির ধান কেটে দিবে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার এস এম মাহফুজুর রহমান বলেন, ধান কাটার জন্য চেয়ারম্যান মাইকেল ওঝা ইউনিয়নটির ৯টি ওয়ার্ডে মেম্বারদের সমন্বয়ে যে কমিটি গঠন করেছে তাহা একটি সময় উপযোগী পদক্ষেপ। এছাড়া তিনি নিজে তার পরিষদের সদস্যদের সাথে নিয়ে মাঠে গিয়ে ধান কাটছেন যা প্রশংসা পাওয়ার দাবি রাখে। আমি চাই চেয়ারম্যান মাইকেল ওঝার মতো উপজেলার সকল জনপ্রতিনিধি এ সময়ে বোরো চাষিদের পাশে থাকুক।