🕓 সংবাদ শিরোনাম

চট্টগ্রামে ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত ২৫, মৃত্যু ৪সুনামগঞ্জে বিদ্যুতায়িত হয়ে মা ও ছেলেসহ ৩ জনের মর্মান্তিক মৃত্যুসৌদি আসতে দিতে হবে করোনা ভ্যাকসিন, নয়তো থাকতে হবে কোয়ারেন্টিনেএখনো ঈদ করতে বাড়ী আসছে দক্ষিনঅঞ্চলের ২১জেলার হাজার হাজার মানুষকরোনার হটস্পট কেরানীগঞ্জ, ঈদে ছাপ নেই স্বাস্থ্য বিধিরবস্তার দোকানে মাদকের ব্যবসা, দুই জন আটকডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে সাতক্ষীরা জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি গ্রেপ্তারভারত থেকে চট্টগ্রামে আসা ৪ জনের করোনা শনাক্ত ত্রিশালে পণ্য বিপনন মনিটরিং কমিটির মতবিনিময় সভাপটুয়াখালীতে গৃহবধুর মৃতদেহ উদ্ধার, স্বামী গ্রেপ্তার

  • আজ রবিবার, ২ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ ৷ ১৬ মে, ২০২১ ৷

সবার জন্য সমান চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত করতে হবে: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা


❏ শনিবার, এপ্রিল ২৫, ২০২০ আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক- নভেল করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) সব নতুন ভ্যাকসিন, ডায়াগনোস্টিকস ও চিকিৎসাসেবা বিশ্বজুড়ে প্রত্যেকের জন্য অবশ্যই সমতার ভিত্তিতে সহজলভ্য করতে হবে।

করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ের গতি বৃদ্ধির পরিকল্পনা নিয়ে গতকাল শুক্রবার (২৪ এপ্রিল) এক অনলাইন সম্মেলনে এ মন্তব্য করেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) প্রধান ড. ট্রেড্রোস আধানম গেব্রেয়েসুস।

করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) প্রতিরোধ ও চিকিৎসায় কার্যকর ওষুধ, পরীক্ষা এবং ভ্যাকসিনগুলো তৈরির গতি বাড়ানোর জন্য যুগান্তকারী সহযোগিতার কথা উল্লেখ করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মহাপরিচালক বলেন, ফুসফুসের এই রোগটি সবার জন্য সাধারণ হুমকি; এটিকে আমরা পরাজিত করতে পারি একটি উপায় অবলম্বন করে।

তিনি বলেন, সেটা হলো- আমাদের পূর্ব অভিজ্ঞতা বলছে, যখন নতুন কোনো কিছু তৈরি হয়; তখন সেটি সবার জন্য সমানভাবে সহজলভ্য হয় না। আমরা এটা ঘটতে দিতে পারি না। তাহলেই কেবল আমরা এটিকে পরাজিত করতে পারব।

আফ্রিকান ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সিরিল রামাফোসা করোনাভাইরাস মহামারির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার চমৎকার উদ্যোগের প্রশংসা করেন। আফ্রিকা মহাদেশ এই ভাইরাসের ধ্বংসাত্মক ঝুঁকিতে আছে বলে সতর্ক করে দিয়েছেন তিনি; একই সঙ্গে করোনার লড়াইয়ে বিশ্বের সহযোগিতা চেয়েছেন।

এর আগে বৃহস্পতিবার (২৩ এপ্রিল) ব্রিটেনের অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানীদের তৈরি একটি ভ্যাকসিন প্রাথমিকভাবে দুজনের শরীরে প্রয়োগ করা হয়েছে। অক্সফোর্ড অধ্যাপক সারা গিলবার্ট এই ভ্যাকসিন তৈরির কাজে নেতৃত্ব দিয়েছেন।

এর আগে ইবোলার প্রতিষেধক তৈরির কাজ করেছিলেন তিনি। গিলবার্ট বলেন, ‘আমি এ ধরনের প্রতিষেধক নিয়ে কাজ করেছি। এর কী ক্ষমতা তা জানি। আমার বিশ্বাস, এই প্রতিষেধক কাজ করবে।’

অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় এবং ইমপেরিয়াল কলেজে লন্ডনের একদল গবেষক সিএইচএডিওএক্স১ এনকোভ-১৯ নামের এই ভ্যাকসিন তৈরি করেছেন। করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ব্রিটিশ বিজ্ঞানীদের তৈরি এটিই প্রথম ভ্যাকসিন।

উল্লেখ্য, বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসে বিপর্যস্ত সারাবিশ্ব। বিশ্বের দুই শতাধিকেরও বেশি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে এই ভাইরাস। এর মধ্যে কয়েকটি দেশে এর প্রকোপ ভয়ংকর রূপ নিয়েছে।

গত একদিনে (২৪ এপ্রিল) বিশ্বে সাড়ে ছয় হাজারের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ১ লাখ ৯৭ হাজারেরও বেশি। একই সময়ে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখেরও বেশি মানুষ। এ নিয়ে সারাবিশ্বে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২৮ লাখ ৩০ হাজার ছাড়ালো।

এছাড়া বিশ্বে করোনা থেকে এপর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন প্রায় ৭ লাখ ৯৮ হাজারেরও বেশি করোনা রোগী।