‘চীন থেকে কেনা ১০ লাখ মাস্ক ত্রুটিপূর্ণ’- কানাডা

৫:০৬ অপরাহ্ন | শনিবার, এপ্রিল ২৫, ২০২০ আন্তর্জাতিক
mask

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ চীন থেকে আনা ১০ লাখ কেএন৯৫ মাস্ক মানসম্মত নয় বলে মন্তব্য করেছে কানাডা। দেশটির জনস্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ (পিএইচএসি) জানিয়েছে, চীনের এসব মাস্ক মানসম্মত নয় তাই তাদের স্বাস্থ্য কর্মীদের ব্যবহার করতে দেওয়া হবে না।

দেশটির জনস্বাস্থ্য বিষয়ক সংস্থা জানায়, তারা দশ লাখ মাস্ক শনাক্ত করতে পেরেছেন, যেগুলো স্বাস্থ্যবিধানের শর্ত পূরণে সক্ষম হয়নি। সম্মুখসারির স্বাস্থ্যসেবা কার্যক্রমে প্রাদেশিক ও বিভিন্ন আঞ্চলিক হাসপাতালে এসব মাস্ক বিতরণ করা হয়নি। তবে চিকিৎসা ছাড়া অন্যান্য কার্যক্রমে এসব মাস্ক ব্যবহারের কথা ভাবা হচ্ছে।

চীনা মডেলের এই কেএন৯৫ মাস্ক এন৯৫ এর অনুরূপ, যা করোনার বিরুদ্ধে লড়ে যাওয়া নার্স, ডাক্তার এবং অন্যান্য স্বাস্থ্যকর্মীদের রক্ষার জন্য ব্যবহৃত এক গুরুত্বপূর্ণ ধরনের ব্যক্তিগত সুরক্ষামূলক সরঞ্জাম।

কানাডার একজন শীর্ষ কর্মকর্তার বরাত দিয়ে পলিটিকো জানিয়েছে, পিপিই’র ৭০ শতাংশই চীন থেকে আমদানি করেছেন তারা। বাকিগুলো যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও সুইজারল্যান্ড থেকে আনা হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

কানাডার পাবলিক সার্ভিস অ্যান্ড প্রোকিউরমেন্ট মন্ত্রী অনীতা আনন্দ বলেছেন, বিশ্বে সরবরাহকৃত সরঞ্জামের বেশিরভাগই চীনে তৈরি করা। অন্য দেশ থেকে এসব জিনিস আনা খুবই জটিল

প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের প্রকোপ বিশ্বজুড়ে মাস্ক, পার্সোনাল প্রোটেক্টিভ ইকুইপমেন্ট এবং টেস্টিং কিট-এর সংকট দেখা দিয়েছে। করোনা মোকাবিলায় ইতিমধ্যে চীন সফল। দেশটি এখন বিভিন্ন দেশে করোনা মোকাবিলার সরঞ্জাম পাঠাচ্ছে। কিন্তু চীনের দেওয়া এসব সরঞ্জাম ত্রুটিপূর্ণ বলে অভিযোগ উঠেছে।

ইতিমধ্যে চীন থেকে কেনা মাস্ক ফেরত পাঠিয়েছে স্পেন, নেদারল্যান্ডস, তুরস্ক এবং অস্ট্রেলিয়া।