হবিগঞ্জে ৪৮ করোনা রোগীর ২২ জনই সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারী

১:৪৮ অপরাহ্ন | মঙ্গলবার, এপ্রিল ২৮, ২০২০ দেশের খবর, সিলেট
Corona-Virus-test

মঈনুল হাসান রতন, হবিগঞ্জ প্রতিনিধি- হবিগঞ্জে হু হু করে বেড়ে চলেছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। এ পর্যন্ত জেলায় করোনা আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন ৪৮ জন।

এর মধ্যে ২২ জনই সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারী। এদের মধ্যে রয়েছেন চিকিৎসক ও নার্সসহ প্রশাসনিক কর্মকর্তা-কর্মচারীও। এত সংখ্যক সরকারি চাকরীজিবী আক্রান্ত হওয়ায় উদ্বেগ দেখা দিয়েছে সর্ব মহলে।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের দেয়া তথ্যমতে- ৮ এপ্রিল পর্যন্ত জেলায় কোন করোনা রোগী শনাক্ত হয়নি। ৯ এপ্রিল নারায়ণগঞ্জ থেকে আসা এক ট্রাকচালকের শরীরে করোনা ধরা পরে। তিনিই হবিগঞ্জের প্রথম করোনা আক্রান্ত ব্যক্তি। এরপর বেশ কিছুদিন আর কেউ শনাক্ত হননি। হঠাৎ করে ২০ এপ্রিল একদিনেই চিকিৎসক ও নার্সসহ মোট ১০ জন করোনা রোগী শনাক্ত হন। এরপর থেকে জেলায় প্রতিদিনই নতুন নতুন রোগী শনাক্ত হচ্ছে। এর মধ্যে ২৫ এপ্রিল একদিনেই ২১ জন রোগী শনাক্ত হন এবং এক শিশু মারা যায়। আক্রান্ত ২১ জনের মধ্যে ১৫ জনই ছিলেন স্বাস্থ্য বিভাগ ও জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা-কর্মচারি।

২০ এপ্রিল জেলায় প্রথম সরকারি কর্মকর্তা হিসেবে আক্রান্ত হন লাখাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের একজন চিকিৎসক ও একজন নার্স। পরদিন ২১ এপ্রিল লাখাই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আরও একজন নার্স আক্রান্ত হন। এছাড়া চুনারুঘাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসক ও ব্রাদার এবং মাধবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ব্রাদারও করোনায় আক্রান্ত হন।

এছাড়া ২৫ এপ্রিল একদিনেই ২১ জন শনাক্ত হন। যাদের মধ্যে ১৫ জনই সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারী। ১১ জন ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট সদর আধুনিক হাসপাতালের চিকিৎসক, নার্স ও ল্যাব টেকনিশিয়ানসহ বিভিন্ন বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারি।

ওইদিন জেলা প্রশাসনের ৪ কর্মকর্তা-কর্মচারী শনাক্ত হন। তাদের মধ্যে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেটসহ আরও ২ জন নির্বাহী ম্যাজিস্টেট রয়েছেন। অপরজন একজন নাজির।

সবশেষ ২৬ এপ্রিল রাতে বানিয়াচং উপজেলা সহকারী কমিশনার (এসিল্যান্ড) আক্রান্ত হন। সবমিলিয়ে জেলায় করোনা শনাক্ত হওয়া ৪৮ জনের মধ্যে চিকিৎসক, নার্স, প্রশাসনের কর্মকর্তাসহ ২২ জন সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারী করোনা আক্রান্ত।

এ বিষয়ে সিভিল সার্জন ডা. মোস্তাফিজুর রহমান বলেন- জেলায় মোট ৪৮ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এদের মধ্যে চিকিৎসক ও নার্সসহ স্বাস্থ্য বিভাগের ১৭ জন এবং প্রশাসনের কর্মকর্তা-কর্মচারী ৫ জন রয়েছেন। বর্তমানে স্বাস্থ্য বিভাগকে নিরাপদ করতে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতাল ও দুটি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপেক্স সাময়িক বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) অমিতাব পরাগ তালুকদার বলেন- ‘জেলা প্রশাসনের ৫ জন কর্মকর্তা-কর্মচারী আক্রান্ত হওয়ায় আমরা উদ্বিগ্ন। এছাড়া জেলায় করোনা আক্রান্ত কমাতে আরও কঠোর অবস্থান নেয়া হচ্ছে।