• আজ ১৯শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

দিনাজপুরে করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে ১৭

১১:৪৭ অপরাহ্ন | বুধবার, এপ্রিল ২৯, ২০২০ রংপুর
din

শাহ্ আলম শাহী, স্টাফ রিপোর্টারঃ দিনাজপুরে এক যুবতিসহ নতুন করে আরো দু’জনের দেহে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এদের বাড়ি একজনের বাড়ি নবাবগঞ্জ উপজেলায় এবং আরেকজনের ঘোড়াঘাট উপজেলায়। এ নিয়ে দিনাজপুরে করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দাড়িয়েছে ১৭ জনে।

এর মধ্যে সদর উপজেলায় ৬ জন। শহরে এক দম্পতি ও তার শিশুসহ ৪ জন, বাকি দু’জন আউলিয়াপুর ইউনিয়নের হরহরিপুর গ্রাম এবং চেহেলগাজী ইউনিয়নের শিবরামপুরে যুবক। নবাবগঞ্জ উপজেলায় ৪ জন, ঘোড়াঘাট উপজেলায় দু’জন, হাকিমপুর(হিলি) উপজেলায় একজন, ফুলবাড়ী উপজেলায় একজন, পাবর্তীপুর উপজেলায় একজন, কাহারোল উপজেলায় একজন এবং বোচাগঞ্জ উপজেলায় দু’জন করোনায় আক্রান্ত রয়েছে।

আক্রান্তদের মধ্যে তিনজন মহিলা, এক শিশু পুত্র ও ১৩ জন পুরুষ বলে জানিয়েছেন দিনাজপুর জেলা সিভিল সার্জন ডা.আব্দুল কুদ্দুস। তিনি জানান, আক্রান্ত ১৭ জনের মধ্যে ১৬ জনই ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ ও গাজীপুর ফেরত, আর একজন স্থানীয়।

দিনাজপুরে বরোনাভাইরাস সংক্রমণ ঝুঁকি এড়াতে অনির্ষ্টকালের লকডাউন চলছে। ১৫ এপ্রিল রাত ১০টা থেকে শুরু হয়েছে এই লকডাউন। কিন্তু জেলায় অধিকাংশ মানুষ মানছে না লকডাউন। শহরে পুলিশ, র‌্যাব, সেনাবাহিনী টহল দিলেও জেলায় অধিকাংশ মানুষ মানছেন না সামাজিক দূরত্ব। পাড়া-মহল্লায় জটলা বেধে আড্ডা, খোশ-গল্প চলছে। যান বাহন চলছে। চলছে উল্লাসও।

লকডাউনের নামে বেশকিছু পাড়া-মহল্লার প্রধান রাস্তাগুলো বাঁশ, ঝাড়-জঙ্গল ফেলে বন্ধ করে দিয়েছে স্থানীয় কিছু স্বার্থন্বেষী ব্যক্তি ও বখাটে তরুণ-যুবকেরা। এ কারণে এম্বুলেন্স, ফায়ার সার্ভিস, প্রশাসনের লোকজন এবং ত্রাণ কর্মীরা ওসব এলাকায় প্রবেশ করতে পারছেন না।

তবে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে আড্ডাবাড়ি, নেশা বিক্রির ঘটনাও ঘটছে। প্রতিদিন বাজার গুলোতেও উপচে পড়া ভীড় পরিলক্ষতি হচ্ছে। প্রয়োজনে অপ্রয়োজনে যারা বের হচ্ছেন, আইন শৃংখলা বাহিনী আটক করলে তারা বিভিন্ন অজুহাত দেখিয়ে দিব্যি চলাচল করছেন।