২ হাজার চিকিৎসক ও ৫০৫৪ নার্স নিয়োগের সুপারিশ পিএসসির

৫:৩০ অপরাহ্ন | বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ৩০, ২০২০ সুখবর প্রতিদিন

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা- কভিড-১৯ এ আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা সেবা দেওয়ার জন্য রাষ্ট্রের জরুরি প্রয়োজনে দুই হাজার চিকিৎসক এবং পাঁচ হাজার ৫৪ জন সিনিয়র স্টাফ নার্স নিয়োগের সুপারিশ করেছে সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি)।

৩৯তম বিশেষ বিসিএস থেকে চিকিৎসক ও ২০১৮ সালের সিনিয়র স্টাফ নার্সের পরীক্ষা থেকে এই নার্স নিয়োগ দেওয়ার সুপারিশ করা হয়েছে বলে বৃহস্পতিবার পিএসসি এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

এতে বলা হয়, রাষ্ট্রীয় জরুরি প্রয়োজনে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের চাহিদা অনুযায়ী দুই হাজার চিকিৎসক এবং হাসপাতালে উন্নত স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিতকরণ ও কোভিড-১৯ এর প্রাদুর্ভাব মোকাবেলায় রাষ্ট্রীয় জরুরি প্রয়োজনে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের চাহিদার প্রেক্ষিতে ৫ হাজার ৫৪ জনকে নার্স হিসেবে নিয়োগের সুপারিশ করা হয়েছে।

এখন সরকারের সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় এদের নিয়ে পদায়ন করলেই তারা কাজে যোগ দিতে পারবেন।

৩৯তম বিশেষ বিসিএসের লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হলেও পদ না থাকায় ৮ হাজার ১০৭ জন নিয়োগের জন্য সুপারিশ পাননি। এদের মধ্য থেকে দুই হাজার জনকে সহকারী সার্জন পদে নিয়োগের সুপারিশ করা হয়েছে।

পিএসসি বলছে, অতি সম্প্রতি বিজ্ঞাপিত কিন্তু আবেদনকৃত প্রার্থীদের যাচাই-বাছাই কার্যক্রম সম্পন্ন হয়নি এমন সিনিয়র স্টাফ নার্সের পদগুলো সংরক্ষিত রেখে ৫ হাজার ৫৪ জনকে নিয়োগের সুপারিশ করা হয়েছে।

সাময়িকভাবে সুপারিশকৃত প্রার্থীদের রেজিস্ট্রেশন নম্বরসহ তালিকা কর্মকমিশনের ওয়েবসাইট boschen.gov.bd অথবা টেলিটকের মাধ্যমে bps.teletalk.com.bd এর মাধ্যমে ফল জানা যাবে।

পিএসপির চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সাদিক বলেছেন, ‘৩৯তম বিশেষ বিসিএসের অপেক্ষমাণ তালিকা থেকে মেধার ভিত্তিতে দুই হাজার চিকিৎসক নিয়োগের সুপারিশ করা হয়েছে এবং ২০১৮ সালের অপেক্ষমাণ তালিকা থেকে নার্স নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। তারা সবাই পরীক্ষিত। সবাই পাস করেছেন। পদ কম থাকার কারণে আমরা তাদের নিয়োগের সুপারিশ করতে পারিনি, তাই অপেক্ষমাণ তালিকায় রেখেছি।’