সংবাদ শিরোনাম

বাংলাদেশকে তিস্তার পানি না দেয়ার সাফ ঘোষণা মমতারশ্বশুরবাড়ি যাওয়ার আগে কাঁদতে কাঁদতেই মারাই গেলেন কনে!এবার ‘টোকাই’ হয়ে আসছেন হিরো আলমহাসপাতালের ওষুধ পাচারের ছবি তোলায় ১০ সংবাদকর্মী তালাবদ্ধবঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ স্বাধীনতার প্রকৃত ঘোষণা: প্রধানমন্ত্রীনির্মাণকাজ শেষের আগেই ‘মডেল মসজিদের’ বিভিন্ন স্থানে ফাটলআহসানউল্লাহ মাস্টারসহ ১০ ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠান পাচ্ছেন স্বাধীনতা পুরস্কারঐতিহাসিক ৭ মার্চের সুবর্ণ জয়ন্তী: টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে মানুষের ঢলচট্টগ্রাম কারাগারে হাজতি নিখোঁজ, জেলার-ডেপুটি জেলার প্রত্যাহারদেবীগঞ্জে ট্রাক্টরের চাপায় মোটরসাইকেল আরোহীর মৃত্যু

  • আজ ২৩শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ভারতে করোনা আক্রান্ত ও মৃত্যুতে নতুন রেকর্ড

১২:৪০ অপরাহ্ন | শুক্রবার, মে ১, ২০২০ আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ ভারতে ৩৫ হাজার ছাড়িয়ে গেছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। ভারতের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যদফতরের তথ্য অনুযায়ী, দেশে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৩৫ হাজার ৪৩ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ২ হাজার। এই সময়ে মোট আক্রান্ত হয়েছেন ১৯৯৩ জন। যা একদিনে সর্বোচ্চ। মৃত্যুর দিক থেকেও রেকর্ড গড়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ৭৩ জনের। ফলে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১১৪৭। তবে সুস্থ হয়েছেন সাড়ে ৮ হাজারের বেশি মানুষ।

ভারতে সবচেয়ে ভয়াবহ পরিস্থিতি মহারাষ্ট্র, গুজরাট ও দিল্লির। এই তিনটি রাজ্যে যে হারে সংক্রমণ বাড়ছে এবং পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃত্যু। মহারাষ্ট্রে ইতিমধ্যেই ১০ হাজার ছাড়িয়ে গিয়েছে আক্রান্তের সংখ্যা।

এই রাজ্যে প্রথম করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়ে ৯ মার্চ, তিন জনের শরীরে। কিন্তু কয়েক দিনের মধ্যেই দেশের মধ্যে আক্রান্তের সংখ্যায় সবার উপরে উঠে আসে মহারাষ্ট্র। তার পর থেকে এখনও পর্যন্ত প্রায় সব সময়ই শীর্ষস্থানে রয়েছে এই রাজ্য।

সারা দেশে কোভিড আক্রান্তের মধ্যে ৩১ শতাংশেরও বেশি আক্রান্ত এই রাজ্যেই। মৃত্যুর হিসাবটা আরও ভয়ঙ্কর। সারা দেশের ৪৬ শতাংশেরও বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে মহারাষ্ট্রেই। ইতিমধ্যেই এ রাজ্যে মৃত্যু হয়েছে ৪৫৯ জনের।

মহারাষ্ট্রের পর সংক্রমণের নিরিখে ভারতে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে গুজরাট। সেখানে আক্রান্তের সংখ্যা ৪৩৯৫। মৃত্যু হয়েছে ২১৪ জনের। তৃতীয় স্থানে রয়েছে দিল্লি। এখানে ৩ হাজার ৫১৫ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। মৃত্যু হয়েছে ৫৯ জনের।

মধ্যপ্রদেশে সংক্রমিত হয়েছেন ২ হাজার ৬৬০ জন। সেখানে মৃত্যু হয়েছে ১৩৭ জনের। রাজস্থানে সংক্রমিত হয়েছেন ২৫৮৪ জন। মৃত্যু হয়েছে ৫৮ জনের। তামিলনাড়ুতে আক্রান্তের সংখ্যা ২৩২৩। উত্তরপ্রদেশে ২২০৩ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। মৃত্যু হয়েছে ৩৯ জনের।

এদিকে, ভারতের পশ্চিমবঙ্গে করোনায় আক্রান্ত ৭৯৫ জন।