জামায়াতের সাবেক নেতাদের নতুন দল ‘এবি পার্টি’র আত্মপ্রকাশ

৬:১১ অপরাহ্ন | শনিবার, মে ২, ২০২০ জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা- করোনার প্রকোপের মধ্যে সবাই যখন দিশেহারা তখন নতুন রাজনৈতিক দল নিয়ে সামনে আসলো জামায়াতের সাবেক নেতারা। জামায়াত থেকে বেরিয়ে আসা ও বহিষ্কৃতদের সমন্বয়ে রাজনৈতিক উদ্যোগ ‘জন আকাঙ্ক্ষার বাংলাদেশ’ নামে সংগঠনটি নতুন রাজনৈতিক দল হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেছে।

শনিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে রাজধানীর বিজয়নগর এলাকায় সংগঠনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে ‘আমার বাংলাদেশ পার্টি’ বা এবি পার্টি হিসেবে আত্মপ্রকাশ ঘটেছে সংগঠনটির।

নতুন দলের নাম ঘোষণার পাশাপাশি ২২২ সদস্যের একটি আহ্বায়ক কমিটিও ঘোষণা করা হয়েছে সংবাদ সম্মেলনে।

এবি পার্টির আহ্বায়ক হয়েছেন গত ডিসেম্বরে জামায়াতের মজলিশে শূরা থেকে পদত্যাগ করা এ এফ এম সোলায়মান চৌধুরী। সাবেক এই আমলা সেনা সমর্থিত তত্বাবধায়ক সরকারের সময়ে জনপ্রশাসন সচিব ছিলেন। ছিলেন রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান। একাদশ সংসদ নির্বানে কুমিল্লা-১০ থেকে বিএনপি নেতৃত্বাধীন ঐক্যজোটের প্রার্থী হতে চেয়েছিলেন।

আর ইসলামী ছাত্রশিবিরের সাবেক সভাপতি মঞ্জু এ কমিটির সদস্য সচিব। ছাত্রশিবিরের সাবেক এই সভাপতি সংস্কারের দাবি জানিয়ে গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে জামায়াত থেকে বহিষ্কার হন।

সংবাদ সম্মেলনে মঞ্জু বলেন, ‘‘সমালোচকদের তীর্ষক ভ্রূকুটি উপেক্ষা করে আমরা ঘোষণা করছি, আজ থেকে আমাদের দলের নাম ‘আমার বাংলাদেশ পার্টি’- এবি পার্টি।

“আমরা মনে করি, একাত্তর সালের স্বাধীনতা যুদ্ধ ও বিজয় আমাদের জাতীয় ঐক্যের অন্যতম পাটাতন। এবি পার্টি সেই পাটাতনকে সুদৃঢ় ভিত্তির উপর দাঁড় করাতে বদ্ধ পরিকর।”

বিজয় নগরে ‘সায়হাম স্কাই ভিউ’ টাওয়ারে ‘জন আকাঙ্ক্ষার বাংলাদেশ’ এর কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এই সংবাদ সম্মেলনের ব্যানারে লেখা ছিলো ‘সাম্য, মানবিক মর্যাদা ও সামাজিক সুবিচার এই তিন মূলনীতির ভিত্তিতে জনআকাঙ্ক্ষার বাংলাদেশ পুনর্গঠন করে নতুন রাজনৈতিক দল আমার বাংলাদেশ পার্টি-এবি পার্টির আত্মপ্রকাশ অনুষ্ঠান।

সংবাদ সম্মেলনে নতুন দলের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য তুলে ধরেন অবসরপ্রাপ্ত মেজর আব্দুল ওহাব মিনার। তিনি বলেন, ‘ধর্ম, বর্ণ, জাতি নির্বিশেষে’ প্রতিটি মানুষের মৌলিক ও নাগরিক অধিকার নিশ্চিত করার মাধ্যমে বাংলাদেশকে একটি ‘কল্যাণ রাষ্ট্রে উন্নীত করা’ হবে এ সংগঠনের উদ্দেশ্য।

এবি পার্টির ৭ দফা কর্মসূচিতে বলা হয়- জাতীয় ঐক্য প্রতিষ্ঠা, গণতন্ত্র ও মৌলিক অধিকার প্রতিষ্ঠা, প্রেরণা সৃষ্টি, উন্নয়ন ও গবেষণা, নেতৃত্ব তৈরি, সামাজিক এবং রাষ্ট্রীয় সংস্কার ও কল্যাণ রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠায় কাজ করবে এ দল। আর ‘জন আকাঙ্ক্ষার বাংলাদেশ’থাকবে এবি পার্টির ‘রিসার্চ উইং’ হিসেবে।

মঞ্জু বলেন, আহ্বায়ক কমিটির দায়িত্ব হবে সব জেলায় কমিটি গঠন করা, দলের খসড়া গঠনতন্ত্র চূড়ান্ত করা এবং দ্রুততম সময়ে গণতান্ত্রিক ও গঠনতন্ত্র অনুযায়ী জাতীয় কনভেনশন করে দলের নেতৃত্ব নির্বাচন করা।