চিকিৎসকদের নামে ছেলের নাম রাখলেন বরিস জনসন


আন্তর্জাতিক ডেস্ক- সম্প্রতি দুই চিকিৎসকের নিবিড় যত্ন ও চিকিৎসায় করোনাভাইরাস থেকে সেরে উঠেছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। প্রাণঘাতী ভাইরাসের কবল থেকে মুক্ত হয়ে সুস্থ-স্বাভাবিক জীবনে ফিরে এসেছেন।

তার এই আনন্দের সঙ্গে যুক্ত হয়ে নতুন আনন্দ। ছেলের বাবা হয়েছেন তিনি। আর সে আনন্দকে আরো পরিপূর্ণতা দিতে আইসিইউতে থাকাকালে তার দুই চিকিৎসকের নাম জুড়ে দিয়ে রেখেছেন নবজাতক ছেলের নাম। বান্ধবী ক্যারি সিমন্ডসের গর্ভজাত সন্তানের নাম রাখা হয়েছে উইলফ্রেড লরি নিকোলাস জনসন।

ইনস্টাগ্রামে দেয়া এক পোস্টে বান্ধবী ক্যারি সিমন্ডস বলেন, বরিস করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর যে দুই ডাক্তারের আওতায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন, সন্তানের নামে তাদের নাম জুড়ে দিয়েছেন। এ ছাড়া, বরিস ও তার বান্ধবীর দাদার নামের অংশও ছেলের নামের সঙ্গে যুক্ত হয়েছে। খবর বিবিসির

শনিবার ইনস্টাগ্রামে সন্তান কোলে নিজের ছবি শেয়ার করেন সিমন্ডস। তখনই সদ্যোজাত সন্তানের নামের ব্যাখ্যা দেন। বরিসের দাদার নাম থেকে এসেছে উইলফ্রেড, আর তার নিজের দাদার নাম থেকে নেওয়া হয়েছে লরি। আর নিকোলাস রাখা হয়েছে ডাক্তার নিক হাট ও নিক প্রাইসের প্রতি সম্মান জানিয়ে।

সম্প্রতি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর লন্ডনের একটি হাসপাতালের আইসিইউতে টানা কয়েক দিন ছিলেন জনসন। দীর্ঘ চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে ফেরার কয়েক দিন পর বুধবার ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী পুত্র সন্তানের বাবা হন।

হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাওয়ার পর প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের প্রতিক্রিয়া ছিল এরকম : ব্যাপারটি অন্যরকমও হতে পারত। বাঁচার জন্য মনের সবটুকু শক্তি ব্যয় করেছি আমি। আর আইসিইউতে মনে হয় লিটার লিটার অক্সিজেন দিতে হয়েছে আমাকে।

গত বুধবার ছেলের জন্মের সময় স্ত্রীর পাশেই ছিলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী। পরে সেখান থেকে করোনা মহামারি মোকাবিলার নেতৃত্ব দিতে ১০ নম্বর ডাউনিং স্ট্রিটে ফেরেন।

◷ ১২:০৯ অপরাহ্ন ৷ রবিবার, মে ৩, ২০২০ আন্তর্জাতিক