• আজ বৃহস্পতিবার, ১২ কার্তিক, ১৪২৮ ৷ ২৮ অক্টোবর, ২০২১ ৷

নিজেই মৃত্যুর গুজব ছড়িয়েছিলেন কিম!

kim
❏ সোমবার, মে ৪, ২০২০ আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন বেঁচে আছেন, নাকি মারা গেছেন? গত প্রায় ৩ সপ্তাহ ধরে বিশ্বজুড়ে এই প্রশ্ন ঘোরাফেরা করছিল। কিন্তু শুক্রবার (১ এপ্রিল) কিম সুনচন শহরে একটি সার কারখানার উদ্বোধন করতে জনসমক্ষে এসে সব জল্পনা উড়িয়ে দেন।

বিশেষজ্ঞদের ধারণা, সরকারের মধ্যে থাকা বিশ্বাসঘাতকদের চিহ্নিত করতে কিম নিজের মৃত্যুর গুজব নিজেই ছড়িয়ে দিয়েছিলেন। ব্রিটিশ গণমাধ্যম দ্য ডেইলি স্টারের এক প্রতিবেদনে এমনটাই বলা হয়েছে।

যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম স্কাই নিউজের অস্ট্রেলিয়া প্রতিনিধি জেমস মরো বলেন, ‘এই মৃত্যুর গুজবের মাধ্যমে বিশ্বাসঘাতকদের চিনতে পেরেছেন কিম। সে এই সময়ে দেখতে চেয়েছেন যে তার জায়গায় কে ক্ষমতা নিয়ে চায়।’ জেমস মরোর ধারণা, যাদেরকে বিশ্বাসঘাতক মনে হয়েছে তাদের বিরুদ্ধে এখন ধরপাকড় চালাবে কিম জং উন। আর এভাবে সে দীর্ঘ সময় ধরে ক্ষমতায় থাকতে পারবেন।

যুক্তরাজ্যের ইউনিভার্সিটি অব এসেক্সের প্রফেসর নাতাশা লিন্ডস্টায়েডটি বলেন, আমি ধারণা করছি খুব শিগগিরই কিছু মানুষকে শাস্তির আওতায় আনা হবে উত্তর কোরিয়ায়। উত্তর কোরিয়ার সর্বোচ্চ নেতা কিম জং উন বেশ কিছু সরকারি কর্মকর্তাকে ভয়াবহ শাস্তি দিতে পারেন বলেও আশঙ্কা করছেন প্রফেসর নাতাশা লিন্ডস্টায়েডটি।

এর আগে কিম মারা গেছেন অথবা গুরুতর অসুস্থ বলে গুজব ছড়িয়ে পড়ে। এ নিয়ে বিশ্বের বিভিন্ন গণমাধ্যমে জল্পনা আলোচনা চলে। কোনো কোনো প্রতিবেদনে তার মৃত্যুর আশঙ্কাও করা হয়েছে। তবে দক্ষিণ কোরিয়ার সরকারি কর্মকর্তারা বারবারই বলছেন, কিম বেঁচে আছেন, ভালো আছেন।

উল্লেখ্য, কিমের হঠাৎ উধাও হয়ে যাওয়া এটাই প্রথম না। ২০১৪ সালে একবার ৬ সপ্তাহ পরে জনসমক্ষে এসেছিলেন। একটি বৈদ্যুতিক গাড়িতে চেপে গণমাধ্যমের সামনে এসেছিলেন উত্তর কোরিয়ার নেতা। শনিবারও সেরকমই একটি ভিডিও প্রকাশ করেছে উত্তর কোরিয়া।