মির্জাপুরে করোনা আক্রান্ত রোগী পলাতক, খুঁজছে স্বাস্থ্য বিভাগ ও পুলিশ

২:২১ অপরাহ্ন | বৃহস্পতিবার, মে ৭, ২০২০ ঢাকা, দেশের খবর

মো. সানোয়ার হোসেন, মির্জাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি- টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে আরও দুই যুবকের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে। আক্রান্তদের মধ্যে একজন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পরিচ্ছন্নতাকর্মী (২৮) ও উপজেলার গোড়াই ইউনিয়নের নাজিরপাড়া গ্রামের ভাড়াটিয়া রাজমিস্ত্রি (২৫) বলে জানা গেছে।

আক্রান্তের বিষয়টি বৃহস্পতিবার (০৭ মে) সকালে নিশ্চিত করেছেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মাকসুদা খানম।

তবে এদিকে আক্রান্ত রোগী এক যুবক (রাজমিস্ত্রি) (২৮) পালিয়েছেন বলে জানা গেছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে এর সত্যতা নিশ্চিত করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আবদুল মালেক।

জানা যায়, বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স কর্তৃপক্ষের হাতে ঐ ব্যক্তির রিপোর্ট আসে। রিপোর্টে জানা যায় তিনি করোনায় আক্রান্ত। এরপর থেকেই নিরুদ্দেশ রয়েছেন তিনি। তিনি উপজেলার গোড়াই ইউনিয়নের নাজিরপাড়া এলাকায় ভাড়া থাকতেন বলে জানা গেছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সুত্র জানায়, গত ০৪ মে সোমবার উপজেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে মোট ৮ জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য প্রেরণ করা হয়। নমুনা পরীক্ষা শেষে বৃহস্পতিবার সকালে প্রাপ্ত রিপোর্টে ২ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়। এদের মধ্যে আক্রান্ত রাজমিস্ত্রিকে উদ্ধার ও বাড়ি লকডাউন করতে গেলে তাকে খুঁজে পায়নি স্বাস্থ্যকর্মীরা।

জানা যায়, বৃহস্পতিবার সকালে আক্রান্ত ঐ রাজমিস্ত্রি কাজ করতে জেলার দেলদুয়ার উপজেলার ডুবাইল এলাকায় যান। আক্রান্তের তথ্য প্রকাশের পর থেকেই তার ফোন বন্ধ এবং তিনি কর্মস্থল থেকে পলাতক রয়েছেন।

ইতিমধ্যে পলাতক ব্যক্তির সন্ধানে কাজ করে চলেছেন উপজেলা প্রশাসন, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও থানা প্রশাসন। পলাতক ব্যক্তির ফোন বন্ধ পাওয়ায় ফোন ট্র্যাকিং করে সে কোন স্থানে অবস্থান করছেন এটি নিশ্চিত করে তাকে উদ্ধারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে বলে জানিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আবদুল মালেক।

এদিকে আক্রান্ত স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পরিচ্ছন্নতাকর্মীকে চিকিৎসার জন্য জেলা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে এবং স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক ভবন লকডাউন করা হয়েছে।