২০ লাখ অসহায় পরিবারকে মাসে ২ হাজার টাকা করে দেবে সরকার

১২:০০ পূর্বাহ্ন | শুক্রবার, মে ৮, ২০২০ জাতীয়
dui

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্কঃ করোনা মোকাবেলায় বাংলাদেশকে ৫০ কোটি ডলার ঋণ দিচ্ছে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি)। বর্তমান বাজার দরে টাকার অঙ্কে এর পরিমাণ ৪ হাজার ২৫০ কোটি টাকা। বৃহস্পতিবার (০৭ মে) দুপুরে ফিলিপাইনের ম্যানিলায় সংস্থাটির সদর দপ্তর থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক।

করোনা সংকট মোকাবিলায় এডিবির কাছে বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে সহযোগিতার অনুরোধের পরিপ্রেক্ষিতেই এ অর্থ অনুমোদন করেছে সংস্থাটি। এডিবির অর্থে করোনাকালীন জরুরি সহায়তা হিসেবে প্রায় ২০ লাখ গরিব পরিবারকে মাসে ২৩ ডলার বা প্রায় ২ হাজার টাকা করে দেওয়া হবে। এ ছাড়া মাসে ২০ কেজি করে খাদ্য সহায়তা দেয়া হবে ১০ লাখ পরিবারকে। সব মিলিয়ে এই কর্মসূচির আওতায় প্রায় দেড় কোটি মানুষ উপকৃত হবে।

এই অতিরিক্ত ঋণ অনুমোদন বিষয়ে এডিবি’র প্রেসিডেন্ট মাসাটসুগেু আসাকাওয়া বলেন, করোনা দুর্যোগ কাটিয়ে উঠতে বাংলাদেশের সামাজিক এবং অর্থনৈতিক নিরাপত্তা পুনরুদ্ধারে এডিবি শুরু থেকেই দেশটির পাশে থেকে সহযোগিতা করছে। এই ঋণ সেই সহযোগিতারই অংশ, যাতে এই দুর্যোগ মোকাবিলায় বাংলাদেশের সক্ষমতা আরো বাড়ানো যায়।

তিনি বলেন, আমরা উন্নয়ন সহযোগীসহ সকলেরই সঙ্গে ঘনিষ্টভাবে কাজ করছি। যাতে এই দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্ত খাতগুলোকে সহায়তা করা যায় এবং গরিব মানুষকে সহযোগিতা করা যায়, বিশেষ করে যারা এই দুর্যোগে কাজ হারাচ্ছেন। এই ঋণ থেকে ১৫ মিলিয়ন গরিব মানুষ সহযোগিতা পাবে।

দেশে দেশে করোনার চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় এডিবির গঠিত ২ হাজার কোটি ডলারের তহবিল থেকে এই অর্থ পাচ্ছে বাংলাদেশ। বাংলাদেশকে এই অর্থ সহায়তা দেওয়ার এডিবিকে ধন্যবাদ দিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

এর আগে গত ২৮ মার্চ প্রথম দফায় ২ কোটি ৫৫ লাখ টাকা (৩ লাখ মার্কিন ডলার) ঋণ অনুমোদন দেয় এডিবি। ৩০ এপ্রিল দ্বিতীয় দফায় ঋণ অনুমোদন দেয় প্রায় ৮৫০ কোটি টাকা (১০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার)।