সংবাদ শিরোনাম
সীমান্ত থেকে ফেরত গেল ১২ হাজার টন ভারতীয় পেঁয়াজ | মানুষের আস্থা পেয়েছি বলেই দেশ স্থিতিশীল আছে: প্রধানমন্ত্রী | দেশে কমেছে করোনা শনাক্ত, মৃত বেড়ে ৫০৯৩ | এই দিনই দিন না, আরও দিন আছে: রিজভী | ‘৭৫ এর মত দেশকে অস্থিতিশীল করার ষড়যন্ত্র এখনও চলছে’- প্রধানমন্ত্রী | করোনাপরবর্তী চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় সার্কের দেশগুলোকে এক হয়ে কাজ করার আহ্বান পররাষ্ট্রমন্ত্রীর | দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত-মৃত্যুর সর্বশেষ তথ্য | কিশোরগঞ্জে জনসচেতনতায় মাদকবিরোধী পদযাত্রা অনুষ্ঠিত | টাঙ্গাইলে দূর্গা পূজায় তিন দিনের ছুটিসহ সংখ্যালঘু আইন বাস্তবায়নের দাবিতে মানববন্ধন | ‘ইয়েমেনে পরাজিত সৌদি রাজা সালমান প্রলাপ বকছেন’- ইরান |
  • আজ ১০ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

‘করোনায় ডায়াবেটিস-কিডনি রোগীদের মৃত্যুর ঝুঁকি বেশি’

১০:৩৪ অপরাহ্ণ | রবিবার, মে ১০, ২০২০ আপনার স্বাস্থ্য
Prof-Dr-Nasima

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্কঃ স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা বলেছেন, উচ্চ রক্তচাপ, ডায়াবেটিস, হাইপারটেনশন, ক্যান্সার, কিডনি রোগী, ক্রনিক রেসপেরেটোরিতে আক্রান্তরা করোনায় বেশি ঝুঁকিপূর্ণ। তাদের দিকে বিশেষ নজর দিতে হবে। রোববার (১০ মে) মহাখালী থেকে নিয়মিত স্বাস্থ্য বুলেটিনে এ পরামর্শ জানান তিনি।

স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলার বিষয়ে নাসিমা সুলতানা বলেন, ‘আপনার সুস্থতা আপনার হাতে। আপনি যত বেশি সচেতন থাকবেন, তত বেশি সুস্থ থাকবেন। নিয়মিতভাবে সাবান পানি দিয়ে ২০ সেকেন্ড ধরে হাত ধুবেন। শারীরিক দূরুত্ব বজায় রেখে চলবেন এবং কোনো ধরনের সামাজিক অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করবেন না। মসজিদে নামাজ পড়তে গেলে অবশ্যই শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে নামাজ পড়বেন। সব সময় মাস্ক পরবেন।

তিনি বলেন, বলেন, ‘পানি বেশি করে খাবেন। তরল খাবার বেশি করে খাবেন। ভিটামিন সি সমৃদ্ধ খাবার- টাটকা শাকসবজি, ফলমূল, সবুজ শাকসবজি খাবেন। প্রোটিনসমৃদ্ধ খাবার খাবেন। প্রোটিনের সবচেয়ে ভালো উৎস ডিম। আমরা নিয়মিতভাবে ডিম খেতে পারি। যাদের ফ্যাটের সমস্যা আছে, তারা কুসুমটা বাদ দিয়ে ডিমের সাদা অংশটুকু খেতে পারেন। সাদা অংশে প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন আছে। এটা পুরোটাই প্রোটিন আসলে। মাছ, মাংস সংগ্রহ না করতে পারলেও আমার মনে হয়, ডিমটা সংগ্রহ করতে পারি সবাই।’

উল্লেখ্য গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে আরও ১৪ জনের মৃত্যু হয়েছে জানিয়ে অধ্যাপক ডা নাসিমা সুলতানা বলেন, এ নিয়ে করোনায় মৃতের সংখ্যা ২২৮ জনে দাঁড়িয়েছে। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আরো ৮৮৭ জনের শরীরে করোনাভাইরাসে উপস্থিতি নিশ্চিত হওয়া গেছে। এ নিয়ে দেশে আক্রান্তে সংখ্যা ১৪ হাজার ৬৫৭ জনে দাঁড়িয়েছে।

তিনি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ২৩৬ জন এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হলো দুই হাজার ৬৫০ জন। সুস্থতার হার ১৮ দশমিক ১০ শতাংশ এবং মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৫ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনের নেয়া হয়েছে ১৬৯ জনকে। বর্তমানে আইসোলেশনের আছেন দুই হাজার ১১৫ জন।