• আজ ১৩ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

১৭ লাখ টাকায় মুশফিকের ব্যাট কিনলেন শহিদ আফ্রিদি

১০:৩৯ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, মে ১৫, ২০২০ খেলা
afri

স্পোর্টস আপডেট ডেস্কঃ দুই দফা নিলাম বন্ধের পর অবশেষে বিক্রি হলো মুশফিকুর রহিমের ঐতিহাসিক ব্যাটটি। ক্রেতা কোনো সাধারণ ব্যক্তি কিংবা ভক্ত নন। ব্যাটটি কিনেছেন কিংবদন্তী পাকিস্তানি ক্রিকেটার শহীদ আফ্রিদির ফাউন্ডেশন। নিলামে ২০ হাজার ইউএস ডলারে (প্রায় ১৭ লাখ টাকায়) ব্যাটটি কিনে নেয় তারা। প্রাপ্ত পুরো অর্থ ব্যয় করা হবে করোনা যুদ্ধে।

শুক্রবার রাতে ব্যাট নিলামে বিক্রি হওয়ার পর মুশফিক বলেছেন, ”আমি অনেক আগে থেকেই আফ্রিদির অনেক বড় ফ্যান। বিপিএলে এক দলে খেলেছি, বিপক্ষে দলে তো খেলেছিই। তার সঙ্গে আমাদের ভালো স্মৃতি আছে অনেক। পিএসএলে খেলার সময়ও কথা হয়েছে। ভালো বোঝাপড়া আছে। তার ফাউন্ডেশন অনেক দিন থেকে কাজ করছে। করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতেও পাকিস্তানসহ নানা জায়গায় সহায়তা কার্যক্রম উনার মতো চালিয়ে আসছেন। এত বড় ব্যক্তিত্ব এই সহায়তা করেছেন, তাতে আমি সম্মানিত। যত টাকাই হয়েছে, বিভিন্ন সোর্সের মাধ্যমে যত দ্রুত সম্ভব পাঠিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করব যেন মানুষের জন্য কাজে লাগানো যায়। আমরা আমাদের মতো চেষ্টা করছি। আশা করি, সামর্থ্যবান সবাই মানুষের পাশে দাঁড়াবেন।’

মুশফিকের পেজে শেয়ার করা এক ভিডিও বার্তায় আফ্রিদি বলেন, ‘আসসালামুআলাইকুম মুশফিক, আপনি দেশের মানুষের জন্য যা করছেন তা সত্যিই প্রশংসনীয়। সত্যিকারের নায়করাই একাজ করতে পারে। আমরা সবাই মিলে খারাপ একটা সময় পার করছি। এ সময় আমাদের একে অন্যকে সাহায্য করা জরুরী যাতে করে এই পরিস্থিতি থেকে বেরিয়ে আসতে পারি। অতীতে বাংলাদেশে আমি যে পরিমানে ভালবাসা ও সম্মান পেয়েছি তা আমি সারা জীবন মনে রাখবো। পাকিস্তানের জনগন ও শহীদ আফ্রিদি ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে, আমি আপনার ব্যাটটা কিনে আপনার সঙ্গী হতে চাই এই পথ চলায়। আপনার জন্য আমার প্রার্থনা সব সময় থাকবে, আশা করছি আল্লাহ আমাদের সাহায্য করবেন এই মহামারী পরিস্থিতি থেকে উত্তরণে। আপনার সাথে আবারো মাঠে আমার দেখা হবে তাড়াতাড়ি। ধন্যবাদ।’

উল্লেখ্য ২০১৪ সালে পাকিস্তানের জনপ্রিয় ক্রিকেটার শহীদ আফ্রিদি ফাউন্ডেশনটি প্রতিষ্ঠা করেন। এটি পাকিস্তানসহ বিভিন্ন দেশে জনহিতকর কাজ করছে। ক্রিকেটের স্মরণীয় ব্যাটটি সংগ্রহে রাখার জন্য কিনে রাখছে ফাউন্ডেশটি।

এই ব্যাট দিয়ে ২০১৩ সালে গল টেস্টে স্বাগতিক শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে নিজের প্রথম ডাবল সেঞ্চুরির করেছিলেন মুশফিক। নিলামে ব্যাটটির ভিত্তিমূল্য ধরা হয়েছিল ৬ লাখ টাকা।