সংবাদ শিরোনাম

জমি সংক্রান্ত বিরোধে ভাইয়ের হাতে বোন খুন!টাঙ্গাইলে রাতের অন্ধকারে অতর্কিত হামলায় কলেজ ছাত্র নিহতফেনীর সোনাগাজী পৌর মেয়রের জমির শ্রেনী পরিবর্তন করে রাজস্ব ফাঁকি‘ভারতে যারাই ক্ষমতায় এসেছে, তারাই মুসলমানদেরকে শিক্ষা থেকে দূরে রেখেছে’দাপুটে জয়ে সিরিজ শুরু বাংলাদেশেরসাজার বদলে আদালত থেকে দেয়া হলো বই, ১০ শর্তে মুক্তি পেলো ৪৯ শিশুকুয়াকাটায় সৈকতে ডিগবাজি দিতে গিয়ে পর্যটকের মৃত্যুঠাকুরগাঁওয়ে স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর মৃত্যুদণ্ডশাহজাদপুরে বসতবাড়িতে চোরাই তেলের অবৈধ গোডাউনে ভয়াবহ আগুন, ৩ জন দগ্ধটাঙ্গাইলে ৫ম শ্রেণির ছাত্রীকে শ্লীলতাহানির অভিযোগে যুবক গ্রেফতার

  • আজ ৭ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ধানের ভালো ফলন ও দাম পেয়ে কৃষকের মুখে হাসি

◷ ৬:০৪ অপরাহ্ন ৷ বুধবার, মে ২০, ২০২০ রাজশাহী
dhan

নাজমুল হক নাহিদ, নওগাঁ প্রতিনিধি: নওগাঁর আত্রাইয়ে এবারে বোরো ধানের যেমন ফলন হয়েছে তেমনি দামও পাচ্ছে কৃষকরা। ধান কাটার ভরা মৌসুমে বাজারে ধানের দাম ভাল পাওয়ায় কৃষকদের চোখেমুখে হাসি ফুটে উঠেছে। বিগত কয়েক বছর থেকে বোরো ধানে লোকসানের শিকার হয়ে কৃষকরা হতাশ হয়ে পড়েছিল। এবারে ধানের ফলন ও দাম ভাল পাওয়ায় তারা আর হতাশ নয় বরং তারা কিছুটা হলেও ঘুরে দাঁড়াতে সক্ষম হয়েছে।

জানা যায়, গত বেশ কয়েক বছর থেকে আত্রাইয়ে বোরো ধানের চাষ করে কৃষকরা লোকসানের শিকার হচ্ছিল। ধান পাকার মৌসুমে প্রতিকূল আবহাওয়া, পানিতে ধান ডুবে যাওয়া, শ্রমিক সংকট ও নানাবিধ সমস্যার কারনে বোরো চাষে কৃষকদের অনেক লোকসান গুনতে হয়েছে। যার ফলে এবারে উপজেলার বিভিন্ন মাঠে অনেক জমি অনাবাদি পড়ে থাকতে দেখা গেছে। তারপরও যেহেতু এ আবাদই এলাকাবাসীর একমাত্র ভরসার আবাদ তাই প্রতি বছরই তাদের বোরোচাষ করতে হয়। এবারে বোরো চাষ করে বাম্পার ফলন ও বাম্পার মূল্য পাওয়ায় কৃষকদের মুখে হাসি ফুটে উঠেছে।

উপজেলার শাহাগোলা গ্রামের কৃষক আজাদ আলী সরদার বলেন, বিগত দিনের তুলনায় এবারে আমরা বোরো ধানের সর্বাধিক ফলন পেয়েছি। আমাদের এলাকায় সকলেই জিরাসাইল ধানের আবাদ করে। এ ধানের চাল চিকন, ভাত খুব মজাদার তাই এলাকাজুড়ে এখন এ ধানেরই চাষ করা হয়। আমার এবং আমাদের মাঠে অন্যান্য কৃষকের জমিতে এবারে বিঘা প্রতি ২৫ থেকে ২৮ মণ হারে বোরো ধান উৎপন্ন হয়েছে।

বজ্রপুর গ্রামের কৃষক মেহেদী হাসান রুবেল বলেন, করোনা পরিস্থিতির কারনে আমরা ধান কাটা নিয়ে আতঙ্কের মধ্যেই ছিলাম। কিন্তু ধান পাকার শুরুতেই প্রধানমন্ত্রী ধান কাটা শ্রমিকদের আসা নিশ্চিত করায় এবং বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, যুবলীগ, আওয়ামীলীগসহ বিভিন্ন সংগঠন আমাদের পাশে দাঁড়ানোর ফলে আমাদের কোন দুর্ভোগ পোহাতে হয়নি। এবারে আমরা ধানের যে দাম পেয়েছি তাতে বোরো চাষে আমরা লাভবান হয়েছি। বর্তমানে আমাদের এখানে জিরাসাইল ধান ৯৩০ থেকে ৯৫০ টাকা মণ বিক্রি হচ্ছে।

এ বিষয়ে আত্রাই উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ কেএম কাউছার হোসেন বলেন, এবারে বোরো চাষের শুরু থেকেই অনুকূল আবহাওয়া, যথাসময়ে ধানের চারা রোপন, সঠিক পরিচর্যা সবকিছু মিলে ধানের বাম্পার ফলন হয়েছে। অন্যান্য বারের তুলনায় এবারে ধান কাটার সময় আবহাওয়া অনুকূল থাকায় এবং ধানকাটা শ্রমিক যথাসময়ে পৌঁছানো নিশ্চিত করায় কৃষকদের দুর্ভোগ পোহাতে হয়নি। বর্তমানের বাজারে ধানের যে দাম রয়েছে প্রতি বছর ধানের এমন দাম পেলে কৃষকরা বোরাে চাষে আরও ঝুঁকবে।