সংবাদ শিরোনাম
  • আজ ৩রা মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

রূপগঞ্জে আরো ৩৯ জন করোনা আক্রান্ত, উপজেলায় মোট ৩৯৩

◷ ৯:৪৮ অপরাহ্ন ৷ রবিবার, মে ৩১, ২০২০ ঢাকা, দেশের খবর
111916849 gettyimages 1210609839

লিখন রাজ, রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি: প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসে নতুন করে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে আরো ৩৯ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে পুরো উপজেলা করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ৩৯৩ জনে। বর্তমানে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আইসোলেশনে রয়েছে ১৩ জন।

এদিকে নমুনা দেয়ার একদিন পরে মৃত্যুবরণ করেছে এক ব্যক্তি। মৃত্যুর দুইদিন পর রিপোর্ট আসে তিনি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ছিলেন। এ নিয়ে উপজেলা মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫ জনে।

রবিবার দুপুরে এ তথ্য জানিয়েছে উপজেলা আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার ডাঃ ফয়সার আহমেদ।

ডাঃ ফয়সার আহমেদ জানান, রবিবার দুপুরে আসা রিপোর্টে গত ২৮ মে গাজী কোভিক-১৯ পিসিআর ল্যাবে ২৭৯ জনের পাঠানো নমুনার মধ্যে ৩৯ জনের করোনা পজেটিভ হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন। এ নিয়ে রূপগঞ্জ উপজেলায় মোট করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল ৩৯৩ জনে। এদিকে ২৮ মে নমুনা দেয়ার পর ২৯ মে উপজেলার সদর ইউনিয়নের হাবিব নগর এলাকার নুরুল ইসলাম মৃত্যুবরণ করেন।

রবিবার দুপুরে আসা রিপোর্ট থেকে জানা গেছে তিনি করোনা পজেটিভ। এ নিয়ে উপজেলায় করোনায় মৃতের সংখ্যা ৫ জন। হাসপাতাল থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ী ফিরেছেন ২৩ জন। উপজেলা পর্যায়ে হটস্পট হয়ে উঠা রূপগঞ্জে প্রতিদিন আক্রান্তের সংখ্যা বাড়লেও মানুষের মাঝে নেই তেমন কোন সচেতনতা। খোলামেলা চলাফেরা করছেন জনসাধারণ। স্বাস্থ্যবিধি মানার কোন লক্ষ্যনই দেখা যায়না উপজেলাবাসীর মাঝে। এ কারণে রূপগঞ্জে মহামারীর আশংকা করছেন স্থানীয় সচেতন মহল।

এ ব্যাপারে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা সাঈদ আল মামুন জানান, রূপগঞ্জ একটি শিল্পাঞ্চল উপজেলা। এখানে প্রায় ৩ শতাধিক গার্মেন্টসহ ৩ হাজারে অধিক ছোট-বড় বিভিন্ন শিল্পকারখানা রয়েছে। এখানে কর্মরত বেশীরভাগ শ্রমিক এলাকার বাইরের। এমনকি এ উপজেলার মধ্যে ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক ও এশিয়ান হাইওয়ে (বাইপাস) সড়ক অবস্থিত।

এছাড়া উপজেলার বেশীরভাগ লোকজন কোন স্বাস্থ্যবিধি ও নিয়মকানুন না মেনে প্রকাশ্য এলাকায় অবাদে ঘুরাফেরা করছে ও শিল্পকারখানায় কাজ করছে। এজন্য এখানে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দিন দিন বেড়ে চলছে।

উপজেলায় নতুন আক্রান্ত ৩৯ জনকে তাদের আক্রান্তের বিষয়টি জানিয়ে আইসোলেশনে থাকার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। বর্তমানে আমাদের হাসপাতালে ১৩ করোনা পজেটিভ রোগী আইসোলেশনে রয়েছে। আক্রান্তদের মধ্যে কেউ যদি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আইসোলেশনে থাকতে চায় তাদের থাকার ব্যবস্থা করা হবে।