২৬ বাংলাদেশিকে হত্যার ‘মূল হোতা’ খালেদ ড্রোন হামলায় নিহত

১১:২৪ অপরাহ্ণ | বুধবার, জুন ৩, ২০২০ আন্তর্জাতিক
khal

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশিসহ ৩০ জনকে নির্বিচারে গুলি করে হত্যার ঘটনায় ‘মূল হোতা’ মিলিশিয়া নেতা খালেদ আল-মিশাই সেদেশের বিমান বাহিনীর ড্রোন হামলায় নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার লিবিয়ার রাজধানী ত্রিপোলির ৮০ কিলোমিটার দক্ষিণে গারিয়ান শহরের কাছে ড্রোন হামলায় তার মৃত্যু হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে আনুষ্ঠানিকভাবে টুইট করেছে দ্য লিবিয়া অবজার্ভার।

লিবিয়ার সংবাদমাধ্যম বলছে, খালেদ ছিলেন লিবিয়ার একাংশের নিয়ন্ত্রক বিদ্রোহী জেনারেল খলিফা হাফতারের অনুসারী। ঘটনার পর লিবিয়ার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে জানায়, তারা এর তদন্ত শুরু করেছে।

পরে লিবিয়া সরকারের পক্ষ থেকে আরেকটি বিবৃতি দিয়ে বলা হয়, হত্যাকারীদের বিচারের আওতায় আনতে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ লিবিয়া। এতে নিহতদের পরিবার ও বাংলাদেশ সরকারের প্রতি গভীর সমবেদনাও জানানো হয়।

নিহত বাংলাদেশিরা সবাই অবৈধভাবে ইউরোপ যাওয়ার উদ্দেশ্যে মানব পাচারকারী চক্রের মাধ্যমে লিবিয়া গিয়েছিলেন। এরই মধ্যে অবৈধ মানব পাচারকারী চক্রের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে বাংলাদেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে র‍্যাব অন্তত তিনজনকে গ্রেফতার করেছে।

এর আগে গত ২৮ মে ত্রিপোলি থেকে দূরে মিজদা শহরে ২৬ বাংলাদেশিসহ ৩০ জনকে গুলি করে হত্যা করা হয়। এতে আহত হন আরও ১১ জন বাংলাদেশি।

বাংলাদেশিসহ ওই অভিবাসীদের মিজদা শহরের একটি জায়গায় মুক্তিপণের জন্য জিম্মি রেখেছিল মানবপাচারকারী চক্র। এ নিয়ে এক পর্যায়ে ওই চক্রের সঙ্গে মারামারি হয় অভিবাসী শ্রমিকদের। এতে এক মানবপাচারকারী নিহত হয়। তারই প্রতিশোধ হিসেবে সেই মানবপাচারকারীর লোকজন এ হত্যাকাণ্ড ঘটায়। এ ঘটনায় অস্ত্র সরবরাহ ও নেতৃত্বের জন্য হাফতারের লোকজনকে অভিযুক্ত করে আসছে লিবিয়ার জিএনএ সরকার।