জেদ্দায় ফের মসজিদে নামাজ বন্ধের ঘোষণা

১:০৬ অপরাহ্ণ | শনিবার, জুন ৬, ২০২০ আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক- দীর্ঘদিন লকডাউন ও কারফিউ শিথিল হবার পর সৌদি আরবে জেদ্দায় আবারও মসজিদে নামাজ আদায় বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ বৃদ্ধি হবার পরিপ্রেক্ষিতে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

নির্দেশনা অনুযায়ী, আজ শনিবার থেকে আগামী ২০ জুন পর্যন্ত জেদ্দার সকল মসজিদে নামাজ আদায় বন্ধ থাকবে। সেইসাথে কারফিউয়ের সময় পরিবর্তন করা হয়েছে।

এখন থেকে প্রতিদিন সকাল ৬টা থেকে দুপুর ৩টা পর্যন্ত ঘর থেকে বের হওয়া যাবে। এ সময়ের মধ্যেই সকল কাজ-কর্ম সম্পন্ন করতে বলা হয়েছে।

সেই সাথে জেদ্দা অঞ্চলের জন্য বিশেষ কিছু নির্দেশনাও জারি করেছে সৌদি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, অফিস আদালতে, সরকারি-বেসরকারি সব জায়গায় কাজের জন্য উপস্থিত হওয়া যাবে না। হোটেল ক্যাফেতে অভ্যন্তরীণ সার্ভিস দেয়া বন্ধ থাকবে। কারফিউ চলাকালীন সময়ে এক শহর থেকে অন্য শহরে যাওয়া যাবে না। তবে অন্য সময়ে যেতে পারবে।

পাশাপাশি পাঁচ-ছয় জনের বেশি লোক জমায়েত হওয়া যাবে না, সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে চলার পাশাপাশি বাধ্যতামূলক ব্যবহার করতে হবে মাস্ক। ইতিপূর্বে যে সকল প্রতিষ্ঠান/পেশার লোকজনকে মুভমেন্ট করতে অনুমতি দেওয়া হয়েছে তারা আগের মতো চলা ফেরা করতে পারবেন।

এছাড়া, সৌদি আরবের অন্যন্য এলাকার পরিস্থিতি বিবেচনা করে যেকোন সময় প্রয়োজনীয় নতুন নির্দেশনা দেয়া হতে পারে বলে জানিয়েছেন সৌদি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

গত ২৩ মার্চ থেকে সৌদি আরব জুড়ে জারি হওয়া কারফিউ লকডাউন, আন্তর্জাতিক যোগাযোগ ব্যবস্থাপনা বন্ধ, মসজিদে জামাতে নামাজ আদায় বন্ধ, অফিস আদালত, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, বিপণিবিতান, সিনেমা হল, মার্কেটগুলো অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ থাকার পর সম্প্রতি করোনাভাইরাস পরিস্থিতি আশানুরূপ উন্নতি হওয়ায় গত ২৮ মে থেকে পবিত্র নগরী মক্কার ছাড়া সৌদি আরব জুড়ে সকাল ৬ টা থেকে সন্ধ্যা ৮ টা পর্যন্ত কারফিউ শিথিল করেন সৌদি সরকার।

কিন্তু গতকাল থেকে কোভিড-১৯ আক্রান্তের সংখ্যা ব্যাপকভাবে বেড়ে যাওয়ায় আজ প্রাথমিকভাবে বন্দরনগরী জেদ্দা অঞ্চলে কারফিউ সময়সীমা পরিবর্তন করেন সৌদি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

সূত্র বলছে, আগামী কয়েক দিনের মধ্যে যদি অন্যান্য অঞ্চলেও করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার সংখ্যা বাড়তে থাকে তাহলে ওইসব অঞ্চলেও কারফিউসহ লকডাউন এর আওতায় আসতে পারে।

গতকাল পর্যন্ত সৌদি আরবে করোনা ভাইরাসে ৯৫৭৪৮ জন আক্রান্ত হয়েছেন এরমধ্যে ২২৫ জন বাংলাদেশি সহ কোভিড-১৯এ আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন ৬৪২ জন।তবে সৌদি আরবে কোভিড-১৯ থেকে রেকর্ড সংখ্যক অর্থাৎ ৭০ হাজার ৬১৬ জন সুস্থ হয়ে ঘরে ফিরেছেন।