সংবাদ শিরোনাম
  • আজ ২৪শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ইয়েলো জোনের তালিকায় ঢাকার ৩৮ এলাকা

১০:০৬ পূর্বাহ্ণ | রবিবার, জুন ৭, ২০২০ Breaking News

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক- রাজধানী ঢাকার ৩৮টি এলাকাকে ইয়েলো জোন হিসেবে দেখানো হচ্ছে। আর গ্রিন জোন হিসেবে দেখানো হচ্ছে ১১টি এলাকা। তবে এখন পর্যন্ত রেড জোন হিসেবে কোনো এলাকাকে দেখানো হচ্ছে না।

শনিবার রাতে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে সর্বশেষ আপডেট করা তালিকা অনুসারে ঢাকার ৩৮টি এলাকাকে ইয়েলো জোন হিসেবে দেখানো হচ্ছে।

ইয়েলো জোন হিসেবে চিহ্নিত ৩৮টি এলাকা হলো- আদাবর, উত্তরা পূর্ব, উত্তরা পশ্চিম, ওয়ারী, কদমতলী, কলাবাগান, কাফরুল, কামরাঙ্গীরচর, কোতয়ালী, খিলক্ষেত, গুলশান, গেন্ডারিয়া, চকবাজার, ডেমরা, তেজগাঁও, তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল, দক্ষিণখান, দারুসসালাম, ধানমন্ডি, নিউমার্কেট, পল্টন মডেল, পল্লবী, বংশাল, বাড্ডা, বিমানবন্দর, ভাটারা, মিরপুর মডেল, মুগদা, মোহাম্মদপুর, যাত্রাবাড়ী, রমনা মডেল, লালবাগ, শাহআলী, শাহজাহানপুর, শেরেবাংলা নগর, সবুজবাগ, সুত্রাপুর ও হাজারীবাগ থানা এলাকা।

গ্রিন জোন হিসেবে চিহ্নিত ১১টি এলাকা হলো- উত্তরখান থানা, ক্যান্টনমেন্ট থানা, খিলগাঁও, তুরাগ, বনানী, ভাষানটেক, মতিঝিল, রামপুরা, রূপনগর, শাহবাগ ও শ্যামপুর থানা এলাকা।

এর আগে শনিবার দুপুরে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা বলেন, এখন পর্যন্ত সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ঢাকায় প্রতি এক লাখে যদি ৩০ জন বা এর বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত থাকে তবে সে এলাকাকে রেড জোন হিসেবে ঘোষণা করা হবে। ৩ জনের বেশি কিন্তু ৩০ জনের কম থাকলে সেই এলাকাকে ইয়েলো এবং এক বা দু’জন বা কেউ না থাকলে সেটাকে গ্রিন জোন বলা হবে।

করোনাভাইরাসের কারণে টানা ৬৬ দিন বন্ধের পর গত ৩১ মে থেকে সরকারি-বেসরকারি অফিস চালু হয়েছে। এরপর থেকে পরিস্থিতি আগের চেয়ে অবনতি হয়। এমন অবস্থায় ১ জুন সরকারের উচ্চপর্যায়ের এক সভায় করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বিবেচনায় দেশের বিভিন্ন এলাকাকে ‘রেড, ইয়েলো ও গ্রিন জোনে’ ভাগ করার সিদ্ধান্ত হয়। এরপর কি প্রক্রিয়ায় সেটি হবে তা নিয়ে কাজ শুরু করেন বিশেষজ্ঞরা। সেই কাজ ইতিমধ্যে প্রায় শেষ পর্যায়ে।