সংবাদ শিরোনাম
জামিনে এসে প্রবাসীর স্ত্রীকে নিয়ে মসজিদের ইমাম ‘উধাও’ | লিবিয়া উপকূলে নৌকা ডুবির ঘটনায় বাংলাদেশীসহ উদ্ধার-২২ | নোয়াখালীতে ছুরিকাঘাতে গৃহবধূ হত্যা | লালমনিরহাটে ট্রাকের ধাক্কায় ট্রেন ধরাশায়ী! | ‘দেশের সবগুলো নদী খনন করে বাঁধ নির্মাণ করা হবে’- পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী | শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে মাগুরায় দুস্থদের মাঝে খাবার বিতরণ | “সৃষ্টিকর্তার রহমতে বাংলাদেশে ব্যাপক হারে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ হয়নি” | ভারতের ভ্যাকসিন সমগ্র মানবজাতির কল্যাণে ব্যয় করা হবে: মোদি | ‘সিগারেট খেয়েছি, ড্রাগস নয়..ড্রাগস নিত সুশান্ত’- সারা আলী খান | ৫ অক্টোবর ঢাকায় আসছেন ভারতের নতুন হাইকমিশনার |
  • আজ ১২ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

করোনাযুদ্ধে প্রাণ হারালেন আরও এক পুলিশ সদস্য

৪:০৪ অপরাহ্ণ | সোমবার, জুন ৮, ২০২০ আলোচিত বাংলাদেশ
alom

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্কঃ বাংলাদেশ পুলিশের আরও এক সদস্য করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। শহীদ এ পুলিশ সদস্য হলেন কনস্টেবল মো. আলমগীর হোসেন (৫৫)। তিনি ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের রমনা বিভাগের অধীন হাজারীবাগ পুলিশ ফাঁড়িতে কর্মরত ছিলেন।

তার বাড়ি ফরিদপুর জেলার নগরকান্দা থানার মাজারদিয়া গ্রামে। মৃত্যুকালে তিনি বৃদ্ধা মা, স্ত্রী ও পুত্র সন্তানসহ অনেক আত্মীয়-স্বজন এবং গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

বাংলাদেশ পুলিশের উদ্যোগে তার মরদেহ গ্রামের বাড়িতে পাঠানো হয়েছে। সেখানে ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে জানাজা শেষে মরদেহ পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়।

পুলিশ সদর দপ্তরের সহকারী মহাপরিদর্শক (এআইজি-মিডিয়া) মো. সোহেল রানা বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, এ পর্যন্ত করোনাযুদ্ধে মারা গেলেন ১৯ জন পুলিশ সদস্য।

পুলিশ কর্মকর্তাদের দাবি, আক্রান্ত সহকর্মীদের চিকিৎসার যাবতীয় ব্যবস্থা তারা করেছেন। কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালে রোগীর চাপ থাকায় একটি বেসরকারি হাসপাতাল ভাড়া করেছে কর্তৃপক্ষ। পাশাপাশি রাজধানীতে আক্রান্ত পুলিশ সদস্যদের চিকিৎসার জন্য ১১টি আবাসিক হোটেল ভাড়া করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তি শনাক্তের ঘোষণা দেয় আইইডিসিআর। আর গত ১৮ মার্চ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রথম মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। পুলিশ সদস্যদের মাঝে প্রথম করোনা শনাক্ত হয় গত ২৫ এপ্রিল। আর গত ২৮ এপ্রিল এ রোগে পুলিশ সদস্যদের মধ্যে প্রথম মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। করোনাকালে এ যাবত বাংলাদেশ পুলিশের ১৯ জন বীর সদস্য প্রাণ হারিয়েছেন।