সংবাদ শিরোনাম
গাজীপুরে পিবিআইয়ের অভিযানে অপহরণকারী চক্রের  ২সদস্য গ্রেফতার | সিলেট এবং খাগড়াছড়িতে ধর্ষণের প্রতিবাদে গাজীপুরে ছাত্রদলের বিক্ষোভ | শিল্পপতি হাসান মাহমুদ চৌধুরীর মৃত্যুতে ভূমিমন্ত্রীর শোক | বাংলাদেশ গণিত অলিম্পিয়াড দলকে অভিনন্দন জানালেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী | ‘শেখ হাসিনার জন্যই গণতন্ত্র পুনঃপ্রতিষ্ঠা পেয়েছে’- মেয়র তাপস | ‘নভেম্বরে আসতে পারে করোনার ভ্যাকসিন’- স্বাস্থ্যমন্ত্রী | শেখ হাসিনা বাঙালি জাতির বাতিঘর ও কাণ্ডারি: শিক্ষামন্ত্রী | শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা ও এইচএসসি নিয়ে সংবাদ সম্মেলন করবেন শিক্ষামন্ত্রী | দেশে ইতিহাস বিকৃতির জনক জিয়াউর রহমান: কাদের | শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে এগিয়ে নেওয়ার অফুরন্ত প্রেরণা: কাদের |
  • আজ ১৪ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

উপসর্গহীন ব্যক্তিদের মাধ্যমে সংক্রমণ ছড়ায় না: ডব্লিওএইচও

৫:০৪ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, জুন ৯, ২০২০ আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক- লকাডাউন শিথিল হওয়ার পর করোনাভাইরাসে আক্রান্ত উপসর্গহীন ব্যক্তিদের নিয়ে দুশ্চিন্তায় ছিলেন বিভিন্ন দেশের বিশেষজ্ঞরা। কারণ উপসর্গহীন ব্যক্তিদের থেকে বেশি সংক্রমণ ছড়াতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছিল।

তবে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিওএইচও) বলছে, যারা করোনা পজেটিভ কিন্তু উপসর্গ নেই এ ধরনের অ্যাসিম্পটমেটিক ব্যক্তিদের মাধ্যমে সংক্রমণ ছড়ায় না। আর যদি ছড়ায় তবে তা বিরল ঘটনা।

সোমবার ডব্লিউএইচও’র এমার্জিং ডিজিজেস অ্যান্ড জুনোসিস ইউনিটের প্রধান ডা. মারিয়া ভ্যান কারখোভ জেনেভায় এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘আমাদের কাছে যে তথ্য এসেছে তাতে দেখা যাচ্ছে, উপসর্গহীন ব্যক্তিরা দ্বিতীয় কাউকে আক্রান্ত করেছেন এমন ঘটনা অত্যন্ত বিরল।’

মারিয়া বলেন, ‘আমাদের কাছে বেশ কয়েকটি দেশের তথ্য রয়েছে যারা খুব ভালোভাবে সংক্রমণের যোগসূত্র পর্যবেক্ষণ করছে। তারা উপসর্গহীনদের অনুসরণ করছে, তাদের যোগাযোগ পর্যবেক্ষণ করছে। এতে তারা দ্বিতীয় সংক্রমণ দেখতে পাচ্ছে না। এটা খুবই বিরল।’

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার এ কর্মকর্তার মতে, উপসর্গহীনদের নিয়ে দুশ্চিন্তা না করে বিভিন্ন দেশের সরকারগুলোকে এখন উপসর্গযুক্ত রোগী ও তাদের সংস্পর্শে আসা ব্যক্তিদের শনাক্ত করে আলাদা করাই সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ।

উপসর্গহীনদের বিষয়ে আরও তথ্য জানতে জাতিসংঘের এ সংস্থাটি এখনও কাজ করছে বলেও জানান ভ্যান কারখোভ।

এদিকে বিশ্বজুড়ে পরিস্থিতির আরো অবনতি হচ্ছে এবং আক্রান্ত দেশগুলোকে এ বিষয়ে সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়েছেন ডব্লিউএইচও’র মহাপরিচালক ড. টেডরোস আধানম।

তিনি বলেছেন, গত ১০ দিনের মধ্যে নয়দিনই নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েছে এক লাখেরও বেশি করে। সর্বশেষ রোববার এই সংখ্যা ছিল এক লাখ ৩৬ হাজার, যা বিশ্বজুড়ে একদিনে আক্রান্তের নতুন রেকর্ড।