সংবাদ শিরোনাম
‘ইরানে কোন সামরিক হামলা হলে ভূমিকম্প ঘটিয়ে ছাড়বে তেহরান’ | মুখ খুললেন ভিপি নুরের স্ত্রী | ইলিশের দামে অসন্তুষ্ট ভারত | ভিপি নূরসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে মামলার প্রতিবেদন ১৩ অক্টোবর | আইন অনুযায়ী নুরের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী | মির্জাপুরে বিনা প্রতিদ্বন্দিতায় মেয়র নির্বাচিত প্রয়াত মেয়রের স্ত্রী শিমু | সিরাজগঞ্জে পুকুরে বিষ দিয়ে ৫ লাখ টাকার মাছ নিধন করল দুর্বৃত্তরা | টাঙ্গাইলে ছাত্র অধিকার পরিষদের মানববন্ধনে ছাত্রলীগের হামলা | জাতিসংঘকে দুর্বল করে এমন ভূ-রাজনৈতিক প্রতিদ্বন্দ্বিতার অনুমোদন দেবেন না: প্রধানমন্ত্রী | এবার নুরের বিরুদ্ধে অপহরণ-ধর্ষণ ও ডিজিটাল আইনে মামলা |
  • আজ ৭ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

শুধু করোনা দুর্যোগে নয়, জনগণের পাশে মৃত্যুর আগ পর্যন্ত আছি: আনছর আলী

১১:২০ পূর্বাহ্ণ | বুধবার, জুন ১০, ২০২০ ঢাকা, দেশের খবর

লিখন রাজ, রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি- নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে কখনো দিনের আলোয় আবার কখনো রাতের আঁধারে চলছে ত্রাণ তৎপরতা। অসহায় মানুষ থেকে শুরু করে মধ্যবিত্তদের দিয়ে যাচ্ছেন ত্রাণ সহায়তা।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের পাট ও বস্ত্র মন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বীর প্রতীক এর নির্দেশনায় নিজ অর্থায়নে নগদ টাকা ও খাদ্যসামগ্রী দিচ্ছেন রূপগঞ্জ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতা আনছর আলী।

২৩ শে মার্চ করোনা ভাইরাসের শুরুর দিক থেকে (৬ই জুন) পর্যন্ত রূপগঞ্জ ইউনিয়নে ২৫ হাজার পরিবারকে ত্রাণ দেওয়ার প্রস্তুতি নিয়ে মাঠে নামেন এই নেতা। ৬ই জুন পর্যন্ত ২৪ হাজার ২শ দুঃস্থ পরিবারকে চাল, ডাল, তেল, চিনি, আলু, আটা, সাবানসহ নগদ টাকা দিয়েছেন তিনি।

এছাড়া রূপগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে দরিদ্র, অসহায়, মানুষের সুচিকিৎসার ব্যবস্থার জন্য নগদ ১ লক্ষ ও বেশ কিছু বৈদ্যুতিক ফ্যান তুলে দেওয়া হয় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্মকর্তা ডাঃ সাইদ আল মামুনের হাতে।

শুধু তাই নয়, রূপগঞ্জ উপজেলার দরিদ্র, অসহায় মানুষের জন্য ৫ টন ডাল, ২ টন সয়াবিন তেল তুলে দেন উপজেলা প্রশাসনের কাছে তার এই খাদ্য সহায়তা চলমান রয়েছে।

এছাড়াও রূপগঞ্জ ইউনিয়নের ৬১ অধিক মসজিদের ইমামদের মাঝে নগদ অর্থ বিতরণ করেন এবং সুবিধা বঞ্চিত ও শারীরিকভাবে অক্ষমদের মাঝে ১৫টি হুইল চেয়ার বিতরন করেন এবং ১শ পরিবারকে ছাগল ও ২০টি পরিবারকে গাভী বিতরণসহ আরো ৩০টি পরিবারকে সেলাই মেশিন দেওয়া হয়।

এসব কার্যক্রম রূপগঞ্জ ইউনিয়নে চোখের সামনে দৃশ্যমান। ইতিমধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনেকেই এই নেতার নামের সাথে যুক্ত করেছেন বিশিষ্ট দানবীর ও মানবতার ফেরিওয়ালা।

জানা গেছে, দেশে করোনাভাইরাসের প্রথম দিক থেকে রূপগঞ্জ ইউনিয়নের মানুষকে সচেতন করতে কাজ শুরু করেন এই নেতা। প্রথমে রূপগঞ্জ ইউনিয়নে লিফলেট, জীবাণুনাশক স্প্রে, হ‍্যান্ডস‍্যানিটাজার বিতরণ করেন।

রূপগঞ্জ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতা আনছর আলী সময়ের কন্ঠস্বর কে বলেন, আমি আমার ব্যবসার একটি অংশ রূপগঞ্জ ইউনিয়নের অসহায় হতদরিদ্রের পিছনে আমার মৃত্যুর আগ পর্যন্ত খরচ করতে চাই। এবং আমার ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম করোনা দুর্যোগ শেষ না হওয়া পর্যন্ত চলবে।

এছাড়া তিনি বলেন, সকল সামর্থ্যবান ব্যক্তিরা যদি এই দুর্যোগে এগিয়ে আসেন, তাহলে এ দেশের কোন মানুষ না খেয়ে থাকবে না। সবাইকে নিজ নিজ অবস্থান থেকে মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্যে তিনি বিত্তবানদের প্রতি আহবান জানিয়েছেন।