• আজ ৪ঠা আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

করোনা পরীক্ষা কিট, সুরক্ষা সামগ্রী ও ওষুধে ভ্যাট থাকছে না

৬:৪২ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, জুন ১১, ২০২০ জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা- ২০২০-২১ অর্থবছরের বাজেটে করোনাভাইরাস প্রতিরোধ ও শনাক্তের কাজ ব্যবহৃত টেস্টিং কিটের ওপর থেকে মূল্য সংযোজন কর (ভ্যাট) প্রত্যাহারের প্রস্তাব করেছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

আজ বৃহস্পতিবার (১১ জুন) জাতীয় সংসদে বাজেট অধিবেশনে এ প্রস্তাব তুলে ধরেন অর্থমন্ত্রী। এর ফলে দেশে উৎপাদিত পিপিই ও মাস্কের দাম কমবে।

বাজেট বক্তব্যে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস শনাক্তের জন্য ব্যবহৃত সব ধরনের টেস্টিং কিট আমদানি, প্রস্তুতকরণ ও বাণিজ্যের ক্ষেত্রে ভ্যাট প্রত্যাহারের প্রস্তাব দেন অর্থমন্ত্রী।

সেই সঙ্গে কোভিড-১৯ নিরাময়ে ব্যবহৃত ওষুধ আমদানি, উৎপাদন, ক্রয়-বিক্রয় এবং চিকিৎসার ক্ষেত্রেও ক্ষেত্রেও ভ্যাট প্রত্যাহারের প্রস্তাব দিয়েছেন তিনি।

এছাড়া স্বাস্থ্যকর্মীদের সুরক্ষা বিবেচনায় স্থানীয়ভাবে উৎপাদিত পার্সোনাল প্রোটেক্টিভ ইক্যুইপমেন্ট(পিপিই), সার্জিক্যাল মাস্কের ওপর থেকেও ভ্যাট প্রত্যাহারের প্রস্তাব দেন মুস্তফা কামাল।

সংসদ অধিবেশন শুরুর পর স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর অনুমোদনক্রমে প্রস্তাবিত বাজেট উপস্থাপন শুরু করেন অর্থমন্ত্রী। এটি দেশের ৪৯তম এবং অর্থমন্ত্রী হিসেবে মুস্তফা কামালের দ্বিতীয় বাজেট।

এবারের বাজেটের আকার ধরা হয়েছে ৫ লাখ ৬৮ হাজার কোটি টাকা, যা জিডিপির ১৭ দশমিক ৯ শতাংশ। প্রস্তাবিত বাজেটের আকার চলতি অর্থবছরের সংশোধিত বাজেটের চেয়ে ১৩ দশমিক ২৪ শতাংশ বেশি। আগামী অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে পরিচালনসহ অন্যান্য খাতে মোট বরাদ্দ রাখা হয়েছে ৩ লাখ ৬২ হাজার ৮৫৫ কোটি টাকা এবং বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচিতে বরাদ্দ ধরা হয়েছে ২ লাখ ৫ হাজার ১৪৫ কোটি টাকা।