সংবাদ শিরোনাম
  • আজ ৮ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

মাদারীপুরে নিখোঁজের ৩ দিন পর যুবকের লাশ উদ্ধার, পরিবারের দাবি হত্যা

৪:০৩ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, জুন ১২, ২০২০ ঢাকা
mad

স্টাফ রিপোর্টার, মাদারীপুরঃ মাদারীপুরে নিখোঁজ হওয়ার ৩ দিন পর ধনঞ্জয় বাড়ৈ (২২) নামে এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শুক্রবার দুপুরে রাজৈর উপজেলার কদমবাড়ি ইউনিয়নের হিজলবাড়ি বিলের কচুরি পানায় ঢাকা একটি ডোবা থেকে লাশ উদ্ধার করা হয়। পরে লাশের ময়না তদন্তের জন্য মাদারীপুর সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

নিহত ধনঞ্জয় উপজেলার কদমবাড়ি দিঘীরপাড় গ্রামের ধলু বাড়ৈর ছেলে। নিহত যুবকের পরিবারের দাবি তাকে হত্যা করে লাশ বিলের মধ্যে ফেলা রাখা হয়েছে।

পুলিশ ও পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, রাজৈর উপজেলার কদমবাড়ি ইউনিয়নের দিঘীরপাড় গ্রামের ধলু বাড়ৈর ছেলে ধনঞ্জয় বাড়ৈকে মঙ্গলবার রাত ৮ টার দিকে পার্শ্ববর্তী হিজলবাড়ির বিলে মাছ ধরার কথা বলে দুই বন্ধু রবিন (২০) ও সুজন (১৮) ডেকে নিয়ে যায়। এর পর থেকে ধনঞ্জয় নিখোঁজ থাকে। অনেক খোঁজাখুজির পর শুক্রবার সকালে হিজলবাড়ি বিলের কচুরি পানায় ঢাকা একটি ডোবা থেকে ধনঞ্জয় বাড়ৈর লাশ দেখে পুলিশকে খবর দেয় এলাকাবাসী। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে দুপুরে ওই যুবকের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মাদারীপুর সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে।

নিহত ধনঞ্জয় বাড়ৈর ফুফাতো ভাই আনন্দ বাড়ৈ বলেন, আমার ভাই ধনঞ্জয়কে সুজন ও রবিন মাছ ধরার কথা বলে ডেকে নিয়ে যাওয়ার পর নিখোঁজ থাকে। ধনঞ্জয় কদমবাড়ি বাজারে স্বর্ণের গহনার ডিজাইনার ছিল। ঘটনা প্রকাশ হওয়ার পর ওই দুই বন্ধু এলাকা ছেড়ে পালিয়ে গেছে। ধনঞ্জয়কে হত্যা করে লাশ ফেলে রাখা হয়েছে। হত্যাকান্ডের কারণ এখনো জানা যায়নি।

রাজৈর থানার ওসি খোন্দকার শওকত জাহান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, অন্যত্র হত্যা করে লাশ গুম করার জন্য বিলের কুয়ায় ফেলে কচুিরপানা দিয়ে ঢেকে রেখেছে হত্যাকারীরা। মৃত্যুর সঠিক কারণ ও হত্যাকারীদের আইনের আওতায় আনতে চেষ্টা করে যাচ্ছি।