বাবার জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া চাইলেন নাসিমপুত্র জয়

৩:২০ অপরাহ্ণ | শনিবার, জুন ১৩, ২০২০ জাতীয়

সময়ের কন্ঠস্বর ডেস্ক- আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিমের ছেলে সাবেক সংসদ সদস্য তানভীর শাকিল জয় তার প্রয়াত বাবার জন্য দলীয় নেতাকর্মীসহ দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন।

তিনি বলেছেন, আমার আব্বার জন্য দোয়া করবেন। আমার দাদার (ক্যাপ্টেন এম মনসুর আলী) মতোই উনি সারাজীবন শুধু মানুষের জন্য কাজ করেছেন। করোনার এই সময়ে আপনারা ঘরে বসে আব্বার জন্য দোয়া করবেন।

শনিবার (১৩ জুন) দুপুর দেড়টার দিকে রাজধানীর শ্যামলীর বাংলাদেশ স্পেশালাইজড হাসপাতালের সামনে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে জয় এ কথা বলেন।

তানভীর শাকিল জয় জানান, আগামীকাল (রোববার) সকাল সাড়ে ১০টায় বনানী জামে মসজিদে প্রয়াত মোহাম্মদ নাসিমের নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। জানাজা শেষে বনানী কবরস্থানে তার লাশ দাফন করা হবে।

করোনাভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতির কারণে জনগণের স্বাস্থ্যবিধি ও সচেতনতার দিকটি বিবেচনায় রেখে নাসিমের লাশ তার সিরাজগঞ্জের বাড়িতে নেয়া হচ্ছে না বলেও জানান তানভীর শাকিল জয়।

এ সময় আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ, পানিসম্পদ উপমন্ত্রী এনামুল হক শামীম, সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম, দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া ও প্রকৌশলী আব্দুস সবুর প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

প্রেসিডিয়াম সদস্য ও চৌদ্দ দলের মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিম শ্যামলীর বাংলাদেশ স্পেশালাইজড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার সকাল ১১টা ১০ মিনিটে মৃত্যুবরণ করেন।

গত ১ জুন শ্বাসকষ্ট নিয়ে হাসপাতালে ভর্তির পর করোনাভাইরাস পজিটিভ আসে মোহাম্মদ নাসিমের। ৪ জুন ভোরে বাংলাদেশ স্পেশালাইজড হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ব্রেন স্ট্রোক হয় তার।

৫ জুন সকালে সিএমএইচ এ নেওয়ার কথা থাকলেও অবস্থার অবনতি হওয়ায় সম্ভব হয়নি। বাংলাদেশ স্পেশালাইজড হাসপাতালেই তার অস্ত্রোপচার করা হয়। পরে ৯ জুন আবার করোনা পরীক্ষার ফলাফল নেগেটিভ আসে।

১৯৪৮ সালের ২ এপ্রিল সিরাজগঞ্জে জন্মগ্রহণ করেন তিনি। জাতীয় চার নেতার একজন ক্যাপ্টেন এম মনসুর আলীর ছেলে ছিলেন মোহাম্মদ নাসিম।